• Srabanti Chatterjee Viral Video শ্রাবন্তী
  • অনুরাগের ছোঁয়াঅনুরাগের ছোঁয়া
  • নুসরত জাহান নুসরত
  • ফুলকিফুলকি
  • শুভশ্রীশুভশ্রী
  • ইচ্ছে পুতুলইচ্ছে পুতুল
  • নিম ফুলের মধুনিম ফুলের মধু
  • কার কাছে কইকার কাছে কই

বরের কপালে দিলাম ফোঁটা! বাংলা সিরিয়ালে স্বামী-স্ত্রীর ভাইফোঁটা দেখে হাসির রোল নেটপাড়ায়

বিনোদন ইন্ডাস্ট্রিতে (Tollywood) তারকাদের মন দেওয়া-নেওয়া চলতেই থাকে। একসঙ্গে কাজ করতে গিয়ে প্রেমে পড়ে যান বহু সেলেব্রিটি। এক সিরিয়ালে (Bengali Serial) কাজের সুবাদে প্রেমে পড়েছেন এমন তারকাজুটির উদাহরণ রয়েছে ভুরি ভুরি। তবে শুধু নায়ক-নায়িকা নন, পার্শ্বচরিত্রে অভিনয় করা তারকাদের সম্বন্ধেও কিন্তু এই কথা খাটে।

আবার এমন অনেক তারকাজুটি আছেন যারা বাস্তবজীবনে স্বামী-স্ত্রী হলেও পর্দায় অন্য ধরণের চরিত্রে অভিনয় করছেন। সম্প্রতি যেমন ‘মিলি’ (Mili) সিরিয়ালের দৌলতে এমনই একটি ঘটনার সাক্ষী থেকেছেন দর্শকরা। জি বাংলার (Zee Bangla) এই ধারাবাহিকে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করছেন অনুভব কাঞ্জিলাল এবং খেয়ালী মণ্ডল। খলনায়কের ভূমিকায় দেখা যাচ্ছে ‘মিঠাই’, ‘পিলু’ খ্যাত ধ্রুবজ্যোতি সরকারকে।

   

Mili serial Arjun and Mili

এই ‘মিলি’ ধারাবাহিকেই এমন দু’জন তারকা রয়েছেন যারা বাস্তব জীবনে স্বামী-স্ত্রী। এখানে কথা হচ্ছে, অর্জুনের মায়ের চরিত্রে অভিনয় করা ময়না ব্যানার্জি (Mayna Banerjee) এবং মামার ভূমিকায় অভিনয় করা অর্ণব ব্যানার্জির (Arnab Banerjee) সম্বন্ধে। রিয়েল লাইফে স্বামী-স্ত্রী হলেও সিরিয়ালে ভাই-বোনের ভূমিকায় অভিনয় করছেন তাঁরা।

আরও পড়ুনঃ মন্দিরে গিয়ে বিয়ে করবে শিমুল-শতদ্রু, মাথায় বাজ মধুবালার! টিভির আগেই ফাঁস তোলপাড় করা টুইস্ট

সম্প্রতি ‘মিলি’ ধারাবাহিকে ভাইফোঁটার একটি দৃশ্য দেখানো হয়েছে। সেখানে দেখা যায়, অর্জুনের মা তার মামাকে ভাইফোঁটা দিচ্ছে। অর্থাৎ সিরিয়ালের খাতিরে স্বামীর কপালে ফোঁটা দিতে হয় অভিনেত্রী ময়না ব্যানার্জিকে।

Mili serial Arnab Banerjee and Mayna Banerjee Bhaifota scene

আরও পড়ুনঃ আচমকাই ‘জল থৈ থৈ ভালোবাসা’ থেকে উধাও ‘কোজাগরী’! তবে কি সিরিয়াল ছেড়ে দিলেন অপরাজিতা?

‘মিলি’ ধারাবাহিকের এই দৃশ্য নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন অর্জুনের অনস্ক্রিন মা। সেই সঙ্গে মজার ক্যাপশন দিয়ে লেখেন, ‘কী আর করা যাবে! পাপী পেটের প্রশ্ন’। সেই সঙ্গেই অভিনেত্রী জানান, কখনও অর্ণবের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করেননি তিনি। আর যখন করলেন। তখন স্বামীর কপালে ফোঁটা দিতে হল তাঁকে!

ময়না লিখেছেন, ‘কোনোদিন একসঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করিনি, করলাম তাও আবার বিয়ের ১১ বছর পর ভাই-বোন হিসেবে। শুনেছিলাম, বিয়ের কয়েক বছর পর থেকে স্বামী-স্ত্রী ভাই-বোন হয়ে যায়। মানে একসঙ্গে থাকতে থাকতে একে অপরের পরিপূরক হয়ে ওঠে আর কী! আজ সেটাই হয়ে গেলাম জি বাংলার দয়ায়। ব্যাপারটা কিন্তু মন্দ নয়, নতুন অভিজ্ঞতা হচ্ছে’।