গসিপবিনোদন

কিসিং সিন করতে গিয়ে কন্ট্রোল হারিয়ে ফেলেছিলেন নার্গিস, কাট বলার পরেও ইমরানকে খেয়ে যাচ্ছিলেন চুমু

বলিউড (Bollywood) তারকা ইমরান হাশমি (Emraan Hashmi) ইন্ডাস্ট্রিতে ‘সিরিয়াল কিসার’ নামে পরিচিত। ইমরান হাশমি তার বলিউড ক্যারিয়ারে যতগুলো চলচ্চিত্র দিয়েছেন তার মধ্যে একাধিক সাহসী ও উত্তেজনাপূর্ণ দৃশ্য দিয়েছেন। ইমরান হাশমি তার চুম্বন দৃশ্য এবং রোমান্সের জন্য দর্শক মহলে আলাদা বিশেষত্ব তৈরি করেছেন। বলাই বাহুল্য, কিসিং গড ইমরান হাসমি তার ক্যারিয়ারে অনেক অভিনেত্রীর সঙ্গেই চুম্বনের দৃশ্যে অভিনয় করেছেন।

২০০৩ সালে ফুটপাথ ছবির মাধ্যমে বলিউডে অভিষেক ইমরানের। কিন্তু তিনি জনপ্রিয়তার তুঙ্গে ওঠেন ‘মার্ডার’ ছবি করেই। দেড় দশকের বেশি সময় ধরে তিনি বিভিন্ন নায়িকার সঙ্গে অন্তরঙ্গ দৃশ্যে অভিনয় করে চলেছেন। মল্লিকা শেরাওয়াত, জ্যাকলিন ফার্নান্দেজ, তনুশ্রী দত্ত, নার্গিস ফাকরিসহ বহু তাবড় তাবড় নায়িকাদের ঠোঁট ছুঁয়েছেন তিনি।

কিন্তু এবার একটা ঘটনা শুনলে আকাশ থেকে পড়বেন। আজহার সিনেমায় একসঙ্গে কাজ করেছিলেন নার্গিস ও ইমরান। এই ছবিতে একটি কিসিং সিন ছিল যা খুব পরিচিত। শোনা যায়, এই সিনটি শ্যুটিং করার সময় পরিচালক কাট বলার পরেও ইমরানের ঠোঁট ছাড়েননি নার্গিস। খেয়েই গেছেন ছবি।

তবে বিষয়টি জানাজানির পর থেকেই সমালোচনার ঝড় বয়ে যায়। ২০১৬ সালে এই ছবির শুটিং করতে বিদেশে যান নার্গিস ও ইমরান। হাড় কাঁপানো শীতে প্রায় ৫টি কিসিং সিন ছিল গোটা ছবি জুড়ে। একটি সাক্ষাৎকারে নার্গিস জানান, তিনি জানতেনই না যে একবার-দুবার নয়, পাঁচবার লিপলক করতে হবে ইমরানের সঙ্গে। নার্গিস বলেন, ‘পাঁচবার চুমু খাওয়ার কথা ছবির চুক্তিপত্রে ছিল না। আমি তো ভেবেছিলাম এক্সট্রা চার্জ করব পাঁচটা চুমুর জন্য। আমি জানতাম, ইমরান মনে মনে খুব খুশি হয়েছে। যদিও মুখে বলেছে, ও কিছুই জানত না। আমি জানতাম ও মিথ্যা বলছে।’

Related Articles

Back to top button