ভাইরালভিডিও

গিরগিটির মতো রঙ বদলায়, কাজে আর কথায় গড়মিল পেতেই ‘মিথ্যেবাদী’ তকমা পেলেন নন্দিনী দিদি!

গিরগিটির মতো রঙ বদলায়, কাজে কথায় কোনো মিল নেই! স্মার্ট দিদি নন্দিনী এবার পেল ‘মিথ্যেবাদী’ তকমা

Smart Didi Nandini : সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে রাতারাতি ইন্টারনেট সেনসেশন হয়ে গিয়েছেন স্মার্ট দিদি নন্দিনী (Nandini Didi)। গত কয়েক মাস ধরে নেটপাড়ায় ট্রেন্ডিংয়ে আছেন তিনি। ডালহৌসি এলাকায় তাঁর পাইস হোটেলের কথা কে না জানে! প্রায় রোজই সেখানে লেগে থাকে ইউটিউবারদের ভিড়। এখন তো আবার ভিনরাজ্য থেকেও লোকজন নন্দিনী দিদির (Nandini Ganguly) হাতের রান্না খেতে আসছে! সেই সঙ্গেই পাল্লা দিয়ে বাড়ছে স্মার্ট দিদির (Smart Didi) অনুরাগীর সংখ্যা।

কয়েকদিন আগে সেই নন্দিনীরই একটি বক্তব্য ঘিরে সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social Media) রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছিল। সেদিন তিনি এক ইউটিউবারকে বলেছিলেন, ‘ভাই, তোমরা অনলাইনে যারা রিল ভিডিও বানাও, ইউটিউবে শর্টস বানাও, ওগুলো আমার জন্য ভীষণ ডিফিকাল্ট’। নন্দিনীর এই বক্তব্য ঘিরে নেটপাড়ায় তুমুল চর্চা শুরু হয়েছে। কারণ তাঁর ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে ঢুকলেই দেখা যাচ্ছে সম্পূর্ণ ভিন্ন চিত্র।

Smart didi Nandini Ganguly's pice hotel may close soon

স্মার্ট দিদির ইনস্টাগ্রাম (Instagram) অ্যাকাউন্ট খুললেই দেখতে পাবেন নানান রকমের রিল ভিডিও (Reel Video) রয়েছে সেখানে। কোথাও তিনি রোম্যান্টিক গানে কোমর দোলাচ্ছেন, কোথাও আবার তাঁকে লিপ সিঙ্ক করতে দেখা যাচ্ছে। আর এসব দেখেই নেটিজেনদের একাংশের মত, ‘নন্দিনী দিদির কথার সঙ্গে তাঁর কাজের কোনও মিল নেই’। কেউ আবার কটাক্ষ করে লিখেছেন, ‘এসব না করে রান্নায় নুন দিন’।

আরও পড়ুনঃ উঠতে দেখলেই লোকে টেনে নামায়! সকলের সামনেই চোখে জল, বন্ধ হচ্ছে স্মার্ট নন্দিনী দিদির ভাতের হোটেল?

Smart Didi Nandini, Nandini Didi

আরও পড়ুনঃ ‘বাবার নাম দিয়ে বেশি দিন নয়, নিজেকে প্রমাণ করতে হয়’, মেয়ে কোয়েলকে নিয়ে অকপট রঞ্জিত মল্লিক

শুধু এটুকুই নয়, এই নিয়ে নন্দিনী দিদির রোস্ট ভিডিও অবধি চলে এসেছে। সেখানে স্মার্ট দিদির টিকটক প্রোফাইলের একাধিক ভিডিও দেখা যাচ্ছে। সেসব দেখে একথা অন্তত পরিষ্কার, নন্দিনী রিল ভিডিও বানানোর বেশ দক্ষ। বহুদিন আগে থেকেই এমন ভিডিও বানাচ্ছেন তিনি।

কারণ সোশ্যাল মিডিয়ায় নন্দিনীর পাইস হোটেল ভাইরাল হওয়ার অনেক আগে টিকটক এদেশে ব্যান করা হয়েছে। আর এই বিষয়টা সামনে আসতেই স্মার্ট দিদিকে একাধিক কটাক্ষ করা হচ্ছে। কেউ তাঁকে ‘ফুটেজখোর’ তকমা দিয়েছেন, কেউ আবার ‘গিরগিটি’ বলেছেন।

উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগে এক সাক্ষাৎকারে নন্দিনী বলেছিলেন, ‘দু’দিন পর আমায় তোরা এখানে নাও দেখতে পারিস’। এরপরেই তাঁর পাইস হোটেল বন্ধ হয়ে যাওয়ার জল্পনা শুরু হয় নেটপাড়ায়। যদিও এখনও পর্যন্ত এই বিষয় কোনও সদুত্তর দেননি স্মার্ট দিদি।

Back to top button