খবরবিনোদন

প্যাডে লুকানো ড্রাগস, মাদককাণ্ডে গ্রেফতার আরিয়ানের বান্ধবী, রইল মুনমুন ধামেচার পরিচয়

বর্তমানে বিটাউন থেকে সোশ্যাল মিডিয়া এমনকি সংবাদ মাধ্যমে একজনকে নিয়েই চলছে তুমুল চর্চা। তিনি হলেন শাহরুখ খান (Shahrukh Khan) পুত্র আরিয়ান খান (Aryan Khan)। সম্প্রতি ড্রাগস পার্টিতে গিয়ে মাদক নিয়ে ধরা পড়েছেন আরিয়ান। নিজেই স্বীকার করেছেন মাদক নেবার কথা, এরপ থেকে NCB এর হেফাজতে আছেন আরিয়ান। শুধু আরিয়ান নয়, সাথে আরো বেশ কিছু জনকে আটক করেছে এনসিবি। বাকিদের মধ্যে মুনমুন ধামেচা (Munmun Dhamecha) নামটা ইতিমধ্যেই বেশ চর্চিত হচ্ছে।

পার্টিতে হানা দিয়ে আরিয়ানের লেন্সের বাক্স থেকে ড্রাগস পাওয়া গিয়েছে। আর তার বধূদের কারোর ব্যাগের হ্যান্ডেলে, কারোর জামার সেলাইয়ে তো বান্ধবীদের স্যানিটারি প্যাডের পাওয়া গিয়েছে মাদক। তবে শাহরুখ পুত্রের সাথে গ্রেফতার হওয়া মুনমুনকে নিয়েও এবার শুরু হয়েছে জোর আলোচনার। কিন্তু কে এই মুনমুন ধামেচা! অভিনেত্রী নাকি ষ্টার কিড ? এই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর নিয়েই হাজির হয়েছি।

যেমনটা জানা যাচ্ছে ২৩ বছর বয়সী মুনমুন মূলত মডেলিং করেন। মধ্যপ্রদেশের এক বড় ব্যবসায়ী পরিবারের মেয়ে মুনমুন, তবে সেই ব্যবসায়ীর নাম কি সেটা এখনো জানা যায়নি। মডেলিং ও ফটোশুটের দৌলতে বিটাউনে কমবেশি পরিচিত মুনমুন। সোশ্যাল মিডিয়াতেও বেশ সক্রিয়, রয়েছে ১৫ হাজারেরও বেশি ফলোয়ার। পরিচিতি রয়েছে গুরু রান্ধাওয়া, অর্জুন রামপালের সাথে। তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে আরিয়ানের সাথে কোনো ছবিই মেলেনি।

Munmun Dhamecha

এদিন মুনমুনকে জেরে করে এনসিবি আধিকারিকেরা। জেরায় মাদক নেবার কথা স্বীকার করেছেন মুনমুন। এমনকি ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টের কাছে একটি হোটেলের থেকে মাদক জোগাড় করেছিলেন তিনি। বর্তমানে জেরার ভিত্তিতে তদন্ত শুরু হয়েছে। জানা যাচ্ছে সোমবারেই আরিয়ান ও মুনমুনকে আদালতে তোলা হয়েছে। তবে আপাতত রেহাই নেই এনসিবি হেফাজতেই থাকতে হবে তাদের।

আরও পড়ুনঃ আমার ছেলে ড্রাগস নিতে পারে, সেক্স করতে পারে: শাহরুখ খান

Munmun Dhamecha

প্রসঙ্গত, আরিয়ানের গ্রেফতারির খবর পাওয়া মাত্রই স্পেনের শুটিং ছেড়ে দেশে ফিরেছেন বাবা শাহরুখ খান। এদিকে মা গৌরী খান নিজেও আদালতে দৌড়াদৌড়ি করছেন জামিনের জন্য। ইতিমধ্যেই বিখ্যাত আইনজীবী সতীশ মানশিন্ডেকে আরিয়ানের আইনজীবী হিসাবে অ্যাপয়েন্ট করা হয়েছে। এখন দেখার বিষয় কি হয় এই তদন্তের ফলাফল।

Related Articles

Back to top button