বিনোদনভাইরাল

‘রবীন্দ্রসংগীত বিকৃত করে ভুল করেছি, আর গাইবো না’, অবশেষে সকলের কাছে ক্ষমা চাইলেন হিরো আলম

সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে বাংলাদেশী নায়ক, পরিচালক তথা গায়ক হিরো আলম বর্তমানে বেশ পরিচিত। সিনেমা, মিউজিক ভিডিও থেকে গান সবই করেন তিনি। উদ্দেশ্য মানুষকে বিনোদন দেওয়া। কিন্তু প্রতিবারই নিজের কাজের জন্য প্রশংসার পাশাপাশি তুমুল সমালোচনার শিকার হয়েছেন তিনি। সম্প্রতি রবীন্দ্র সঙ্গীকে বিকৃত করে গাওয়ার পরে ক্ষোভে ফেটে পড়েছিল নেটপাড়া। এমনকি তাকে গ্রেফতারের দাবিও ওঠে বাংলাদেশে।

কিছুদিন আগেই রবীন্দ্র সংগীত গেয়ে সেই ভিডিও শেয়ার করেছিলেন হিরো আলম (Hero Alom Rabindra Sangeet)। ভিডিওতে তিনি বলেন, বাঙালি হিসাবে রবীন্দ্রসংগীত তার খুবই ভালো লাগে তো তাঁর রবীন্দ্রসংগীত গাওয়ার অধিকার আছে। এরপর হাতে গিটার নিয়ে ‘আমার পরাণ যাহা চায়’ গান গেয়ে শুনিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সেই গানে সুর বা লিরিক্স কোনোটারই ঠিক ছিল না। গান শুনে একপ্রকার খেপে লাল হয়ে গিয়েছিলেন নেটিজেনরা।

Hero Alom trolled in social media for singing rabindra sangeet

হিরো আলমের গলায় রবীন্দ্র সংগীত শুনে, ‘গানটার ধর্ষণ করে দিল’ বলে মন্তব্য করেছিল এক নেটিজেন। তো কেউ আবার বলেছিলেন, ‘রবীন্দ্রনাথ বেঁচে থাকলে এই গান শুনেই আত্মহত্যা করতেন’। এমন একাধিক মন্তব্যে ভরে গিয়েছিল কমেন্ট বক্স। সবে লোকের কুকথা থেকে কটাক্ষ কিছুই থামাতে পারেনি তাকে। এরপর প্রয়াত গায়ক কেকের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ‘কাইটস’ ছবির ‘জিন্দেগী দো পল কি’ গেয়ে শুনিয়েছেন। সেই গান শুনেও তিতিবিরক্ত নেটপাড়া।

হিরো আলমের এহেন গানের অত্যাচারে এবার অতিষ্ট হয়ে পড়েছেন বাংলাদেশিরাও। যার জেরে মানবন্ধনের আয়োজন করা হয়েছিল ‘বাংলাদেশ অপসংস্কৃতি প্রতিরোধ সংস্থা’ এর তরফ থেকে। ঢাকার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এই মানববন্ধন হয়েছিল। যেখানে বেশ কিছু বিশিষ্ট মানুষেরাও উপস্থিত ছিলেন। এই মানববন্ধনের দাবি, দিন দিন মাথায় চড়ে গিয়েছেন হিরো আলম। নিজের বেসুরো গান দিয়ে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করছেন তিনি। তাই হিরো আলমকে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে ওই সংগঠন (Arrest Hero Alom)।

সম্প্রতি এই বিষয়ে মুখ খুলেছেন হিরো আলম। ফেসবুক লাইভ এসে তিনি বলেন, ‘বিগত কয়েক দিন ধরে আমাকে নিয়ে আন্দোলন চলছে, কিন্তু আমার আগেও অনেকেই রবীন্দ্রসংগীতকে ব্যঙ্গ করে গেয়েছে। তাদের নিয়ে কারোর মাথা ব্যাথা নেই, আমি করলেই দোষ। তাছাড়া আমি গোটা গান করিনি, পিকনিকে দু লাইন গেয়েছিলাম’।

এরপর তিনি আরও বলেন, ‘যাই হোক আমি চাই না এই বিষয়টা নিয়ে কাদা ছোড়াছুড়ি হোক। আমি ভুল স্বীকার করছি, আমার গান গাওয়াটা ঠিক হয়নি। ভবিষ্যতেও আমি আর এই ধরণের গান করব না। সবাই আমায় ক্ষমা করে দেবেন’। এরপর তিনি আরও বলেন, দর্শকের ভালোবাসাতেই আজ তিনি যা হওয়ার হয়েছেন। তাই আগামী দিনেও যেন এভাবেই ভালোবাসা দেন তাঁর অনুরোধ রইল।

Related Articles

Back to top button