গানবিনোদনভাইরালভিডিও

ঠিক করে দাঁড়াতেও পারছেন না, গলায় নেই সুর! স্টেজে জুবিনের গান শুনে হতাশ দর্শকরা, রইল ভিডিও

কথায় বলে সব ধরণের মন খারাপের ওষুধ নাকি গান। একথা যদি সত্যিই হয় তাহলে প্রিয় গায়কদের মন ভালো করার ম্যাজিশিয়ান বলা যেতে পারে। এমনই একজন জনপ্রিয় গায়ক হলেন জুবিন গর্গ (Zubeen Garg)। বাংলা, অসমীয়া থেকে বলিউডের জন্য হিন্দি ছবিতেও একাধিক প্লে ব্যাক করেছেন তিনি। যার মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয় কয়েকটি হল চোখের জলে ভাসিয়ে দিলাম মনের ঠিকানা, ইয়া আলী, দিল তু হি বাতা এই গান গুলি।

প্লে ব্যাকের পাশাপাশি লাইভ শো করে থাকেন জুবিন গর্গ। সম্প্রতি এমনই একটি লাইভ শোয়ের পারফর্মেন্সের ভিডিও বেশ ভাইরাল হয়ে পড়েছে নেটপাড়ায়। যেখানে চিরাচরিত গায়কের একেবারে অন্য রূপ দেখা যাচ্ছে। গানের গলা একেবারে ভাঙা, ঠিক মত দাঁড়াতে বা চলতেও পারছেন না মনে হচ্ছে ভিডিও দেখে। বোঝা যাচ্ছে হয়তো অসুস্থ ছিলেন তিনি শোয়ের পারফর্মেন্সের সময়।

স্বাভাবিকভাবেই এমন অবস্থায় সঠিক ভাবে সুরে গান গাইতে পারেন নি তিনি। আর এদিনের গানের ভিডিও ক্যামেরাবন্দি করে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করেছেন আর.জি.ঋদ্ধি ঘোষ নামের এক ব্যক্তি। ভিডিওটি ব্যাপকভাবে ভাইরাল হয়ে পড়েছে নেটপাড়ায়। সাথে শুরু হয়েছে কাটাছেঁড়া থেকে সমালোচনা।

ভিডিও দেখে এক নেটিজেনদের মন্তব্য, ‘সত্যি বলতে এনার গলায় কোনো দোষ আসেনি। মদ খেয়ে উঠেছে নেশা হয়ে গেছে, যার কারণে গান গাইতে পারছে না’। একই ধরণের একাধিক কমেন্ট চোখে পড়েছে ভিডিওর নিচে যেখানে অনেকেই শিল্পীকে নেশাগ্রস্ত বলে দাবি করেছেন। নেটিজেনদের একাংশের মতে, ‘ভয়ংকর নেশা করে। একবার এত নেশা করেছিল যে গান শেষ হওয়ার পর স্টেজেই পরে গিয়েছিল।’

Jubin Garg Live Performance Video Comment

তবে কটাক্ষ সমালোচনা ছাড়াও নেটিজেনদের অনেকেই কষ্ট পেয়েছেন গায়কের এমন অবস্থা দেখে। তাছাড়া এবছরে জুলাই মাসেই জানা গিয়েছিল মৃগীতে একরং হয়ে বাথরুমে পরে গিয়ে অজ্ঞান হয়ে গিয়েছিলেন তিনি। যার ফলে মাথায় বড়সড় চোট পান।

দীর্ঘ দিন হাসপাতালেও ছিলেন, এরপর গুয়াহাটিতেও নিয়ে যাওয়া হয়েছিল চিকিৎসার জন্য। কিন্তু ভিডিওটি প্রকাশ্যে আসার পর থেকে একটা প্রশ্ন নেটিজেনদের মনে থেকেই যাচ্ছে সেদিন কি হয়েছিল, অসুস্থ ছিলেন নাকি নেশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছিলেন গায়ক ?

Related Articles

Back to top button