বিনোদনভিডিওসিরিয়াল

‘ধুলোকণা’ শেষ হতেই নতুন ধারাবাহিক নিয়ে হাজির তান-চড়ুই, রইল ‘ইচ্ছে পুতুল’এর হাতেগরম প্রোমো

বাংলা বিনোদনমূলক চ্যানেলগুলিতে এখন নতুন সিরিয়াল (Bengali serial) শুরুর হিড়িক পড়েছে। একের পর এক সিরিয়াল এসেই যাচ্ছে স্টার জলসা, জি বাংলায় (Zee Bangla)। ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকটি ধারাবাহিক শুরু হয়ে গিয়েছে। ধীরে ধীরে প্রকাশ্যে আসছে আরও ধারাবাহিকগুলির প্রোমো। মঙ্গলবার যেমন জি বাংলার তরফ থেকে শেয়ার করা হয়েছে নতুন ধারাবাহিক ‘ইচ্ছে পুতুল’এর (Ichhe Putul) প্রোমো ভিডিও।

জি বাংলার আসন্ন এই ধারাবাহিকে ত্রিকোণ প্রেমের কাহিনী দেখানো হবে। মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করছেন জনপ্রিয় দুই টেলি অভিনেত্রী শ্বেতা মিশ্র, তিতিক্ষা দাস এবং জনপ্রিয় অভিনেতা মৈনাক বন্দ্যোপাধ্যায়। শ্বেতা এবং মৈনাককে মাস খানেক আগে অবধিও দর্শকরা জনপ্রিয় ‘ধুলোকণা’ ধারাবাহিকে একসঙ্গে দেখেছেন।

Ichhe Putul serial
জি বাংলার নতুন সিরিয়েল ইচ্ছেনদী প্রোমো ও দিনক্ষণ

মানালি মনীষা দে এবং ইন্দ্রাশিস রায় অভিনীত ‘ধুলোকণা’য় শ্বেতা চড়ুইয়ের চরিত্রে এবং মৈনাক চড়ুইয়ের দাদা তানের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। এবার তাঁদেরকেই একে অপরের বিপরীতে দেখা যাবে। অপরদিকে তিতিক্ষাকে এর আগে ‘দত্ত অ্যান্ড বৌমা’ সিরিয়ালে দেখেছেন দর্শকরা।

‘ইচ্ছে পুতুল’এর কাহিনী দুই বোনকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে। শ্বেতাকে বড় বোন এবং তিতিক্ষাকে ছোট বোন মেঘের চরিত্রে দেখা যাবে। অপরদিকে মৈনাককে দেখা যাবে মেঘের অধ্যাপকের চরিত্রে। এই তিনজনকে কেন্দ্র করেই আবর্তিত হবে ‘ইচ্ছে পুতুল’এর কাহিনী।

Ichhe Putul serial
জি বাংলার আসন্ন নতুন সিরিয়াল ইচ্ছে পুতুল

প্রকাশ্যে আসা প্রোমোয় দেখা গিয়েছে, মেঘের সব জিনিসই পছন্দ ওঁর দিদির। বাবা-মা মেঘকে নেকলেস কিনে দিলে সেটি এসে নিয়ে নেয় সে। এরপর বোনের জন্মদিনের পার্টিতে তাঁর প্রফেসরকে দেখেও পছন্দ হয়ে যায় শ্বেতা অভিনীত চরিত্রটির। অপরদিকে দিদির জন্য নিজের সবটুকু উজাড় করে দেয় মেঘ। কঠিন অসুখে আক্রান্ত দিদিকে বাঁচাতে নিয়মিত নিজের শরীরের রক্তও দেয় সে। কিন্তু তাই বলে নিজের ভালোবাসাকেও কি দিয়ে দেবে মেঘ? এই কাহিনীই দেখানো হবে ‘ইচ্ছে পুতুল’এ। আগামী ৩০ জানুয়ারি থেকে রাত ১০টায় সম্প্রচার শুরু হবে এই সিরিয়ালের।

‘ইচ্ছে পুতুল’এর প্রোমো দেখার পর নেটিজেনদের একাংশ যেমন ভালোবাসায় ভরিয়ে দিয়েছেন, তেমনই আবার অনেকে ‘চুরি’র অভিযোগও তুলেছেন। অনেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন, এই ধারাবাহিকটির কাহিনীর সঙ্গে ‘ইচ্ছে নদী’ ধারাবাহিকের কাহিনীর বিস্তর মিল রয়েছে। এবার সিরিয়াল শুরু হলেই বোঝা যাবে, সত্যিই এক কাহিনী, নাকি প্রোমোর মিল নেহাতই কাকতালীয়।

Related Articles

Back to top button