খবরবিনোদন

জল্পনার অবসান! নুসরত পুত্রের বাবা যশই, বার্থ সার্টিফিকেটেই রহস্যভেদ

দীর্ঘদিনের বিতর্কের ইতি ঘটল অবশেষে। অভিনেত্রী নুসরত জাহান (Nusrat Jahan) আগেই জানিয়েছিলেন অভিনেতা যশ দাশগুপ্তর (Yash Dasgupta) সঙ্গে চুটিয়ে নিজ পুত্রের অভিভাবকত্ব উপভোগ করছেন তিনি। নুসরত অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পর থেকেই ছায়ার মতো অভিনেত্রী পাশে পাশে ছিলেন যশ। কিন্তু ‘ঈশানের বাবা কে’ এই প্রশ্নটা প্রতিবারই কথার মারপ্যাঁচে এড়িয়ে গিয়েছেন অভিনেত্রী।

কিন্তু কথায় বলে সত্য বেশি দিন চাপা থাকেনা। মিডিয়া বা সামাজিক মাধ্যমে নুসরত নিজেকে সিঙ্গেল মাদার হিসেবে দাবি করলেও ঈশানের বার্থ সার্টিফিকেটেই সামনে এলো আসল সত্যি। যেখানে সদ্যজাত এর নামের জায়গায় রয়েছে ঈশান জে দাশগুপ্ত। বলাই বাহুল্য যশের পদবীও দাশগুপ্ত।

তবে অনুমানের ভিত্তিতে নয় ঈশানের বাবার নামের জায়গায় জ্বলজ্বল করছে দেবাশিষ দাশগুপ্ত, যা যশের পোশাকি নাম এবং মা নুসরত জাহান। অতএব, এতদিনের সর্বাধিক চর্চিত বিতর্কে অবশেষে ইতি পড়ল। কেবল মায়ের পরিচয় নয় ঈশান বড় হয়ে উঠবে বাবা মা উভয়ের পরিচয়েই।

ইঙ্গিত আগেই পাওয়া গিয়েছিল, কিন্তু অনুমান তো কখনও প্রমাণ হয়না। আজ প্রকাশিত ঈশানের বার্থ সার্টিফিকেটে সমস্ত ধোঁয়াশা কাটল। আজ পুরসভার সার্টিফিকেটে দেখা গেল আসলে সন্তানের অভিভাবক হিসাবে রয়েছে দুজনেরই নাম। বাড়ির ঠিকানা হিসাবে সোনারপুর উত্তরের ঠিকানা দেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, নুসরত জাহান অন্তঃসত্ত্বা এই খবর প্রকাশ্যে আসার পরপরই হইচই শুরু হয় নেট দুনিয়ায়। তার দিন কয়েক পরেই নিখিলের সঙ্গে অভিনেত্রীর বিচ্ছেদের খবরও প্রকাশ্যে আসে। নিখিল জৈনের সঙ্গে বিয়ে অস্বীকার করে অভিনেত্রী জানান, ‘তারা কেবলমাত্র সহবাস করেছিলেন। ‘ এরপর থেকেই যশরত জুটিকে নিয়ে চলেছে তুমুল সমালোচনা, তবে এবার সমস্ত জল্পনারই কার্যত অবসান হল।

Related Articles

Back to top button