খবরভাইরাল

মুকেশ অম্বানিকেও লজ্জায় ফেলে দিতে পারে! পৃথিবীর এই ৫ ধনী কুকুরদের সম্পত্তি কয়েক হাজার কোটিতে

ধনী শব্দটা শুনতেই সবার আগে যেটা মাথায় আসে সেটা হল বড়লোক। আর ভারত তথা বিশ্বের সবচাইতে ধনী ব্যক্তিদের কথা বলতে গেলে প্রথমেই মাথায় আসে মুকেশ আম্বানির (Mukesh Ambani) কথা। কিন্তু জানেন কি মানুষের সবচাইতে বিশ্বস্ত বন্ধু এক কুকুরের সম্পত্তিও (Dog Worth) লজ্জায় ফেলে দিতে পারে মুকেশ অম্বানিকে। বিশ্বাস হচ্ছে না বুঝি? তাহলে আপনার জন্য রইল বিশ্বের সবচাইতে ধনী কুকুরদের তালিকা।

একজন সাধারণ মানুষ সারাজীবন উপাৰ্জন করে যে টাকা জমাতে পারে না তার থেকেও কয়েকশো গুণ বেশি টাকার মালিক এই কুকুরেরা। পৃথিবীর সবচাইতে ধনী এই কুকুরদের সম্পত্তি আর লাইফস্টাইল সম্পর্কে জানলে হয়তো ভিরমি খাবেন আপনিও। কেউ কোটি টাকার লিমোজিন গাড়ি ছাড়া বেরোয় না তো কেউ আবার ইনস্টাগ্রামে সেলেব্রিটির থেকেও বেশি জনপ্রিয়। চলুন এবার দেখা নেওয়া যাক এই সমস্ত  কুকুরদের তালিকা।

১. গান্থার ফোর 

পৃথিবীর সবচাইতে ধনী কুকুর হল এই চতুর্থ গান্থার। যার সম্পত্তি বা মূল্য ৮ কোটি মার্কিন ডলারেরও বেশি। জার্মানির এক বিশাল ধনেই ব্যক্তির পোষ্য একটি  জার্মান শেপার্ড চতুর্থ গান্থার। তবে এখানেই শেষ নয় দিনে দিনে তার টাকা বিভিন্ন কোম্পানিতে বিনিয়োগ করে আরও বেড়ে গিয়েছে। বর্তমানে ভারতীয় মুদ্রায় ৩০০০ কোটিরও বেশি টাকার মালিক সে।

২. লোকি 

কী ভাবছেন মার্ভেল সিনেমার কোনো চরিত্র? না একেবারেই নয় আসলে ইনি হলেন একপ্রকার নেকড়ে কুকুর বা হাউন্ড। ইনস্টাগ্রামে প্রায় ২ মিলিয়ন অনুগামী রয়েছে এই কুকুরটির। আর সেখান থেকেই বছরে আড়াই কোটি টাকা উপার্জন করে সে।

৩. জিফ 

পোমেরানিয়ান প্রজাতির এই কুকুরটিও ইনস্টাগ্রামে বেশ জনপ্রিয়। আর সেই জনপ্রিয়তা থেকেই বিশাল টাকার মালিক হয়েছে সে। সোশ্যাল মিডিয়াতে ১০ মিলিয়নের কাছাকাছি ফলোয়ার রয়েছে জিফের। যেটা সেলেব্রিটিদেরকেও হার মানাতে পারে। আর এই ইনস্টাগ্রামে প্রতিটি বিজ্ঞাপনি পোস্টের জন্য ২০ লক্ষেরও বেশি টাকা নেওয়া হয়।

৪. টোবি রিমস 

নিউয়র্কের কোটিপতি এলা ওয়েন্ডেলের ভাগ্য উত্তরাধিকারি এই পুডলটি ধনী কুকুরদের তালিকায় চতুর্থ স্থানে রয়েছে। সৌভাগ্যের প্রতীক এই কুকুরটির আজ পর্যন্ত মোট যা সম্পত্তি রয়েছে তার মূল্য প্রায় ভারতীয় মুদ্রায় ৪০০০ কোটি টাকার সমান।

৫. ম্যানি 

ফ্রান্সের এক বুলডগ ম্যানি। ম্যানির ১ মিলিয়নেরও বেশি ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ার রয়েছে। আর এই সোশ্যাল মিডিয়াতে থেকেই কোটি টাকারও বেশি উপার্জন করে সে। সোশ্যাল মিডিয়াতে তাঁর ছবি শেয়ার হওয়া মাত্রই মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে পরে।

Related Articles

Back to top button