স্বামী সৌমিত্রের মৃত্যুর চার মাসের পরেই প্রয়াত হলেন সহধর্মিনী দীপা চট্টোপাধ্যায়


টলিউডের আকাশের নক্ষত্র সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় (Soumitra Chattopadhyay) মারা গিয়েছেন মাত্র চার মাস আগেই। এবার তাঁর মৃত্যুর সাড়ে চার মাসের মাথাতেই প্রয়াত হলেন সৌমিত্র সহধর্মিনী দীপা চট্টোপাধ্যায় (Deepa Chattopadhyay)। আজ অর্থাৎ রবিবার ভোরের দিকেই সল্টলেকের এক প্রাইভেট হাসপাতালে শেষ নিঃস্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যুকালীন বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর।

Deepa Chattopadhyay

যেমনটা জানা যাচ্ছে দীর্ঘদিন ধরেই শারীরিক সমস্যায় ভুগছিলেন দীপাদেবী। এরপর স্বামী সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে হারিয়ে যেন আরো ভেঙে পড়েছিলেন তিনি। মেয়ে পৌলোমী বসুর কথায়, ‘বাবা চলে যাবার পর থেকেই যেন বেঁচে থাকার ইচ্ছাটাই হারিয়ে গিয়েছিল মায়ের। বারংবার বলতেন এবার আমায় যেতে হবে’। এবার সত্যি সত্যিই মেয়েকে ছেড়ে না ফেরার দেশে স্বামীর কাছে চলে গেলেন দীপাদেবী।

দীর্ঘ ৪৫ বছর ধরে অসুস্থ ছিলেন দীপাদেবী। ডায়াবেটিস বাসা বেঁধেছিল শরীরে। এছাড়াও রক্তের সময়সা ও কিডনির সমস্যাও দেখা দিয়েছিল। বর্তমানে কিডনির সমস্যার বাড়াবাড়ির কারণেই হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। জানা যাচ্ছে এদিন কিডনি বিকল হয়ে যায় দীপাদেবীর। আর সেই কারণেই মৃত্যু হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে পরিবারের তরফ থেকে। আরো জানা গিয়েছে আজ কেওড়াতলা মহাশ্মশানে সম্পন্ন হবে তাঁর শেষকৃত্য।

Soumitra Deepa Chattopadhyay

প্রসঙ্গত, অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের সাথে ১৯৬০ সালের ১৮ই এপ্রিল বিয়ে হয়েছিল দীপা চট্টোপাধ্যায়ের। কলকাতা বিদ্যালয় থেকে স্নাতক হয়েছিলেন দীপাদেবী এরপর প্রেম করেই একেঅপরের জীবনসঙ্গী হন দুজনে। এরপর জীবনের দীর্ঘ পথ একসাথে হেঁটেছেন। স্বামী সৌমিত্রের সাফল্যে যে স্ত্রী দীপাদেবীর হাত রয়েছে তা নিশ্চিত। দুজনে একত্রে কিছু ছবিতেও অভিনয় করেছেন, যার মধ্যে রয়েছে দূর্গা, বিলম্বিতলয় এর মত ছবি। বাঙালির রুপলিপর্দার অপু অর্থাৎ সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে তো আমরা হারিয়েছি আগেই। এবার সেই অপুর আসল জীবনের দূর্গা অর্থাৎ দীপা দেবীও চলে গেলেই না ফেরার দেশে।