গসিপবিনোদন

বহিরাগত হলেও আপন করেছে বলিউড! ‘এটাই আমার পরিবার’, ক্যাটরিনার মন্তব্যে মুগ্ধ নেটিজেনরা

ক্যাটরিনা কাইফ (Katrina Kaif) এমন একজন অভিনেত্রী, যিনি বলিউডকে (Bollywood) নিজের প্রাণের চেয়েও বেশি ভালোবাসেন। ইন্ডাস্ট্রি তাঁর কাছে শুধুমাত্র অর্থ, খ্যাতি পাওয়ার স্থান নয়, বরং তাঁর পরিবার। একটি অ্যাওয়ার্ড শোয়ের মঞ্চে সকলের সামনে বুক চিতিয়ে একথা বলেছিলেন বলি সুন্দরী। আর তাতেই চোখে জল এসে গিয়েছিল সেখানে উপস্থিত সকলের।

২০০৩ সালে ‘বুম’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে পা রেখেছিলেন ক্যাটরিনা। তবে ৩টি সিনেমা করার পর ২০০৫ সালে ‘ম্যায়নে প্যায়ার কিউ কিয়া’ ছবির মাধ্যমে প্রথম সফলতা পান তিনি। ছবিটিতে অভিনয় করেছিলেন সলমন খান, আরশাদ ওয়ার্সি, সোহেল খান এবং সুস্মিতা সেন। এরপর ক্যাট অভিনীত একের পর এক ছবি বক্স অফিসে সফল হতে থাকে।

Katrina Kaif

শনিবার, ১৬ জুলাই ৩৯ বছরে পা দিলেন ক্যাটরিনা। পরের বছর বলিউডে দু’দশক কাটিয়ে ফেলবেন তিনি। বলিউডকে নিজের পরিবার মনে করা এই অভিনেত্রী, ২০০৮ সালে বলিপাড়া সম্বন্ধে নিজের বক্তব্য রেখেছিলেন।

লন্ডনে আয়োজিত জি সিনে অ্যাওয়ার্ডসের মঞ্চে বলিউড প্রসঙ্গে নিজের বক্তব্য রেখেছিলেন ক্যাটরিনা। ব্রিটিশ ইন্ডিয়ান স্টার অফ দ্য ইয়ার পুরস্কারে ভূষিত হওয়ার পর অভিনেত্রী বলেন, ‘আমার মা লন্ডনের এবং আমার বাবা ভারতের। তাই আমার মধ্যে দুই সংস্কৃতিই রয়েছে। তবে এই ইন্ডাস্ট্রি আমায় সাদরে গ্রহণ করেছে। আমি এখানে নিজের পরিবার পেয়েছি, নিজের ঘর পেয়েছি। আমার কাছে এই ইন্ডাস্ট্রিই সব’।

এরপর ২০১৫ সালে ফের এক সাক্ষাৎকারে এই বিষয়ে নিজের বক্তব্য রাখেন ক্যাটরিনা। নায়িকা বলেন, ‘এখানে আমি দারুণ সময় কাটাচ্ছি। আমার এই সফর দারুণ কাটছে। আমি এর চেয়ে বেশি কিছু চাইতে পারি না। আমি যখন এখানে এসেছি, আমি নিজের পরিবার খুঁজে পেয়েছি’।

ক্যাটরিনার আগামী প্রোজেক্টের দিক থেকে বলা হলে, তাঁকে এরপর সিদ্ধান্ত চতুর্বেদী এবং ঈশান খট্টরের সঙ্গে ‘ফোন ভুত’ ছবিতে দেখা যাবে। আগামী ৭ অক্টোবর প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে ছবিটি। এরপর ক্যাটকে সলমন খান, ইমরান হাশমির সঙ্গে ‘টাইগার ৩’ এবং বিজয় সেতুপতির সঙ্গে ‘মেরি ক্রিসমাস’ ছবিতেও দেখা যাবে।

Related Articles

Back to top button