গসিপবিনোদন

শ্যুটিংয়ে সবার সামনে অমৃতাকে থাপ্পড়! অন্যায়ের পরেও মেয়ে এষার হয়েই সাফাই গেয়েছিলেন মা হেমা মালিনী

কোনও সিনেমায় (Movie) তারকাদের মনোমালিন্য হওয়াটা খুবই সাধারণ একটি ব্যাপার। অনেক সময় সেই মনোমালিন্য ঝগড়ার পর্যায়েও পৌঁছে যায়। তবে হাতাহাতি সচরাচর হয় না। বিশেষত নায়িকাদের মধ্যে তো এমনটা চোখে পড়ে না বললেই চলে। তবে ব্যতিক্রম এষা দেওল (Esha Deol) এবং অমৃতা রাও (Amrita Rao)।

ঘটনাটি ঘটেছিল ‘প্যায়ারে মোহন’ ছবির সেটে। দুই নায়িকার মধ্যে মন কষাকষি এতটাই চরমে উঠেছিল যে অমৃতাকে প্রকাশ্যে কষিয়ে থাপ্পড় মেরেছিলেন ধর্মেন্দ্র এবং হেমা মালিনীর (Hema Malini) কন্যা এবং তা সত্ত্বেও কিন্তু ‘ড্রিম গার্ল’ তাঁর মেয়েকে বকেননি, বরং তাঁর সমর্থনই করেছিলেন। কিন্তু এষা এবং অমৃতার মধ্যে কী এমন হয়েছিল যে শেষ পর্যন্ত ধর্মেন্দ্র কন্যা হাত উঠিয়েছিলেন?

Amrita Rao and Esha Deol

সম্প্রতি নেটদুনিয়ায় হেমা এবং এষার একটি পুরনো ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। যেখানে তাঁদের এই বিষয়ে কথা বলতে দেখা যাচ্ছে। এষাকে যখন তাঁর সহ অভিনেত্রী অমৃতাকে থাপ্পড় মারার বিষয়ে জিজ্ঞেস করা হয়, তখন তিনি বলেন, ‘কেউ যদি কিছু ভুল করে থাকেন এবং আমরা তাঁদের কথার মাধ্যমে বোঝাতে না পারি, তাহলে…’।

মেয়েকে মাঝপথেই থামিয়ে হেমা বলেন, ‘দেখুন, কেউ যদি ভুলভাল কথা বলতেই থাকেন এবং বোঝানোর পরেও না বোঝেন তাহলে একটু অন্য ধরণে বোঝাতেই হয়’। এরপর এষা বলেন, ‘তাহলে এই বড় বড় হাত আর কী কাজে আসবে?’

Esha Deol and Hema Malini

এর আগেও অবশ্য এষা এই বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছিলেন। এক নামী সংবাদমাধ্যমকে বলি সুন্দরী বলেছিলেন, অমৃতাকে থাপ্পড় মারা নিয়ে তাঁর কোনও আফসোস নেই। হেমা কন্যা বলেন, ‘পরিচালক ইন্দ্র কুমার এবং ক্যামেরাম্যানের সামনে অমৃতা আমায় অপমান করেছিল এবং আমার মনে হয়েছিল ও সীমা অতিক্রম করেছে’।

হেমা কন্যার সংযোজন, ‘নিজের আত্ম সম্মান বাঁচাতে এবং সেই মুহূর্তের উত্তেজনায় আমি ওঁকে থাপ্পড় মেরেছিলাম। সেই সময় আমার প্রতি ওঁর ব্যবহারের জন্য ওঁর ওটা প্রাপ্য ছিল। আমার একটুও খারাপ লাগেনি। আমি নিজের এবং নিজের সম্মানের জন্য ওই কাজটি করেছিলাম’। যদিও এরপর এষা জানিয়েছিলেন, অমৃতা নিজের ভুল বুঝতে পেরে এরপর তাঁর কাছে এসে ক্ষমা চেয়েছিলেন এবং তিনিও তাঁর ‘প্যায়ারে মোহন’ সহ অভিনেত্রীকে ক্ষমা করে দিয়েছেন। তাঁদের মধ্যে এখন আর কোনও ভুল বোঝাবুঝি নেই।

Related Articles

Back to top button