বিনোদন

বেশ্যাখানাটা কী গো মা! মেয়ের প্রশ্ন শুনে আকাশ থেকে পড়ছেন লারা দত্ত

বলিউডের প্রতিষ্ঠিত অভিনেত্রী লারা দত্ত (Lara Dutta)। সম্প্রতি, তিনি তার ডিজিটার সিরিজ হিক্কাপস অ্যান্ড হুকআপস-এর জন্য শিরোনামে রয়েছেন। এই সিরিজ সম্পর্কে তার মেয়ে সায়রা ও স্বামী প্রাক্তন টেনিস খেলোয়াড় মহেশ ভূপতির প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে বিস্ফোরক এক তথ্য সামনে আনেন লারা। এই সিরিজে বেশ সাহসী দৃশ্যে দেখা মিলেছে প্রাক্তন মিস ইউনিভার্সের। রয়েছে একাধিক বেডসিনও।

মা’কে এই দৃশ্যে অভিনয় করতে দেখেই কী তবে কৌতুহল বাড়ল লারার মেয়ের? আসলে যেকোনোও শিশুর মনেই নানান রকমের প্রশ্ন উঁকি দেয়। লারার মেয়ে সায়রাও এর বিকল্প নয়। মাত্র ৪ বছর বয়সেই ‘ডিভোর্স’ এর অর্থ কি এই প্রশ্ন জেগেছিল ছোট্ট সায়রার মনে। এমনই নানাবিধ প্রশ্ন সায়রার মনে ঘুরতেই থাকে। লারা জানান, সম্প্রতি সায়রা তাকে জিজ্ঞেস করেন বেশ্যাখানা বা পতিতালয় এর অর্থ কি!

মেয়ের মুখে এই প্রশ্ন শুনে কার্যত অবাক লারা। এই বয়সে কোথা থেকে সায়রা এসব শিখছে তা ভেবেই পাচ্ছেনা লারা। উদ্বেগের সাথে লারা জানান“আমি এর আগে মহেশের সাথে আলোচনা ছাড়া কিছু করিনি। আমি মনে করি আমরা একটি প্রগতিশীল পরিবার… সাধারণত আমরা আমাদের বন্ধুদের সাথে এই ধরনের বিষয়ে কথা বলি, আমরা আমাদের পরিবারের সাথে কথা বলি না। আমার মনে আছে, স্কুলে যৌন শিক্ষার পরিধি ছুঁয়েছিল, কিন্তু সেটাই। ”

তিনি আরও বলেন, “তোমার বাবা-মা কখনো তোমার সাথে এ বিষয়ে কথা বলেনি। আমার মেয়ের বয়স যখন চার বছর তখন সে ডিভোর্সের কথা জানতে চায়। নয় বছর বয়সে সে আমাকে জিজ্ঞেস করল, ‘পতিতালয় কী?’ আমি জানি না সে কোথায় এই জিনিসগুলো শুনছে, কিন্তু সে এগুলোর সামনে এসেছে। এটি এমন ধারণা যা তিনি বোঝেন না, এবং এটি তাকে ব্যাখ্যা করা আমার দায়িত্ব,”

গত সপ্তাহে, লারা প্রকাশ করেছেন যে সাইরা হিট আমেরিকান সিটকম ফ্রেন্ডস দেখার সময় মহেশের কাছ থেকে বিবাহবিচ্ছেদের ধারণা সম্পর্কে জানতে পেরেছিলেন। “তার বয়স ছিল চার বছর এবং আমি ছিলাম, ‘কে তোমাকে (তালাকের কথা) বলেছে?’ সে বলল, ‘বাবা করেছেন’। আমি (ফোন কলের ইশারায়) ‘মহেশ, কেন তুমি তাকে বলেছ ডিভোর্স কী?’ এবং তিনি হাসতে শুরু করলেন।

Related Articles

Back to top button