খবরবিনোদন

কোনোদিন ধূমপান পর্যন্ত করিনি!, NCB-কে জানালেন গ্ল্যাম-দুনিয়ার চার তারকা

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু রহস্য এখনও পর্যন্ত অধরা থাকলেও বলিপাড়া সরগরম হয়ে রয়েছে ড্রাগচক্র ঘিরে। সূত্রের খবর, সম্প্রতি নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি)-এর জেরায় দীপিকা পাডুকোন, সারা আলী খান, শ্রদ্ধা কাপুর ও রাকুল সিং প্রীত ড্রাগসেবনের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। যদিও হোয়াটস অ্যাপ চ্যাটের কথা উঠলে তাঁরা জানান যে, ‘ডুব’ বলতে তাঁরা আসলে রোল করা সিগারেটের কথা বলেছেন। যদিও আধিকারিকদের মতে, অভিনেত্রীরা কি লুকাতে চাইছেন তা বোঝা তাঁদের পক্ষে একেবারেই দুঃসাধ্য নয়।

অভিনেত্রীরা সুশান্ত সিংয়ের ড্রাগসেবনের ব্যাপারে কোনো তথ্যপ্রকাশে অনীহা দেখান। এক এনসিবি অফিসার জানিয়েছেন, অভিনেত্রীদের মোবাইল ফোনগুলিকে তথ্যপ্রযুক্তি দলের কাছে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। অন্যদিকে, করণ জোহরের ধর্মাটিক এন্টারটেইনমেন্ট-এর এক প্রাক্তন একজিকিউটিভ প্রোডিউসার বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন সংবাদমাধ্যমে। তিনি জানিয়েছেন, করণ জোহরের বিরুদ্ধে মুখ খুললে সুবিধা পাইয়ে দেওয়ার লোভ দেখানো হয়েছে এনসিবির তরফে। ফলে সবকিছু মিলিয়ে শোরগোল মুম্বইয়ে।

অন্যদিকে এনসিবি হেডকোয়ার্টারে শিতিজ রাজ প্রসাদকে ঘিরে তৈরি হয়েছে সমস্যা। জানা গেছে, রিয়া চক্রবর্তী ও শিতিজ পুলিশি হেফাজতে রয়েছেন। শিতিজ জামিনের আবেদন করলেও এক আধিকারিক জানান, “শিতিজ ড্রাগ মাফিয়াদের সাথে যুক্ত। ওনাকে কোনোমতেই ছাড়া যাবে না।” সূত্রের খবর, আনন্দ সিং ও অঙ্কুশ অর্নেজার থেকে গাঁজা কেনেন শিতিজ এবং এই দুই গাঁজা সরবরাহকারী সুশান্ত সিংয়ের ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডার ঘনিষ্ঠ।

এনসিবির তরফে জানান হয়েছে, ৩রা অক্টোবর পর্যন্ত হেফাজতে থাকার কথা শিতিজের। যদিও প্রসাদের বাড়ি তল্লাশি করে সিগারেটের অবশেষ ছাড়া কিছুই পাওয়া যায়নি। কিন্তু বর্তমানে এনসিবির মোটো একটাই, “যেখানেই দেখ ছাই, উড়াইয়া দেখ তাই। পাইলেও পাইতে পার অমূল্য রতন।”

Related Articles

Back to top button