বিনোদন

আত্মসম্মান জলাঞ্জলি দিয়ে কাজ নয়! সঠিক সময়ের অপেক্ষা করে আজ বাংলার Didi No 1 রচনা ব্যানার্জী

টলিউডের (Tollywood) অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জী (Rachana Bannerjee) বাঙালি দর্শকদের কাছে বেশ জনপ্রিয়। বিগত এক দশকের বেশি সময় ধরে জনপ্রিয় রিয়ালিটি শো ‘দিদি নং ১’ এর জেরে বাংলার ঘরে ঘরে পৌঁছে গেছেন অভিনেত্রী। গত ১৫ই নভেম্বর রবিবার প্রয়াত হয়েছেন অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জীর বাবা রবীন্দ্রনাথ বন্দোপাধ্যায় (Rabindranath Banerjee)।বাবাকে হারিয়ে শোকে পাথর হয়ে পড়েছিলেন অভিনেত্রী। আর মানসিক এই ভগ্নদশায় শ্যুটিং থেকেও দিন কয়েকের জন্য ছুটি নিয়েছিলেন রচনা।

কিন্তু তিনি না থাকলে ‘দিদি নং ওয়ান’ যে অচল। এখন ‘দিদি নং ওয়ান’ মানেই দর্শকেরা বোঝে রচনা ব্যানার্জিকেই। কিন্তু বাবাকে হারানোর পর কিছুতেই শ্যুটিং চালিয়ে যেতে পারেননি রচনা। আর সেই সময় ‘দিদি নং ওয়ান’ সঞ্চালনার দায়িত্ব সামলাচ্ছিলেন রান্নাঘরের সুদীপা চ্যাটার্জি, এবং সৌরভ দাস।

কিন্তু কিন্তু দুজনের কাউকেই পছন্দ নয় দর্শকদের, তাই রচনা ব্যানার্জীকে ফেরানোর দাবিতে সরব হন সকলে। দর্শক ও নেটিজেনদের দাবি রচনা ব্যানার্জী ছাড়া অন্য কাউকেই দিদি নং ১ এর সঞ্চালিকা হিসাবে মানায় না। তাই উনি না আসা পর্যন্ত প্রয়োজন হলে শো বন্ধ রাখুন, কিন্ত সুদীপা বা সৌরভ কাউকেউ দেখতে চান না তারা। আসলে বিগত এক দশকেরও বেশি সময় ধরে রচনা ব্যানার্জীকে দেখেই অভ্যস্ত দর্শকেরা। তাদের মনে ‘দিদি নং ১’ এর রচনা গেঁথে গিয়েছে, তাই অন্য কাউকে সেই স্থানে দেখতে চান না কেউই। কারণ তাদের কাছে দিদি নং ওয়ান মানেই রচনা।

রচনা ব্যানার্জী Rachana Banerjee

কিন্তু আজ ‘দিদি নং ওয়ান’ এত জনপ্রিয় হলেও প্রথমে মোটেই তা ছিলনা। বড় পর্দার একজন সফল অভিনেত্রী টেলিভিশনে কাজ করলেও তিনি সমান জনপ্রিয় থাকেন, এই কথা বাংলায় প্রমাণ করেছেন রচনা। সন্তান হওয়ার পর বেশ কয়েকদিন পর্দা থেকে দূরে ছিলেন অভিনেত্রী। আর সেই সময় কাজও ছিলনা হাতে। তখনই ‘টেলিভিশন’ এ দিদি নং ওয়ানের অফার পান রচনা। আর তাই সাদরে গ্রহণ করলেন অভিনেত্রী। কারণ তার মনে হয়, ফোন করে কারোর থেকে কাজ চাওয়ার থেকে যা পাওয়া যায় তাইই করা উচিৎ।

Related Articles

Back to top button