গসিপবিনোদন

৭০০ বছরের পুরোনো রাজস্থানের এই রাজপ্রাসাদেই বিয়ে করবেন ভিকি – ক্যাট! দেখুন চোখ ধাঁধানো অন্দরমহল

খুব শিগগিরই সত্যি হতে চলেছে জল্পনা। চলতি বছরের শেষেই অর্থাৎ ডিসেম্বরে অসংখ্য ভক্তদের দীর্ঘদিনের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে চারহাত এক হতে চলেছে বলিউডের সেলিব্রেটি কাপল ভিকি কৌশল (Vicky Kaushal) এবং ক্যাটরিনা কাইফের (Katrina Kaif)। সূত্রের খবর ইতিমধ্যেই পাকা হয়ে গিয়েছে তাঁদের তারিখ এবং ডেস্টিনেশন। তবে ডেস্টিনেশন ওয়েডিং নয় রাজকীয় বিয়েতেই সিলমোহর দিচ্ছেন এই জুটি।

নাহ অন্যান্য বলি তারকাদের মতো বিদেশ উড়ে গিয়ে সাতপাক ঘুরবেন না ক্যাট ভিকি, বরং দেশের মধ্যেই রাজকীয় বিয়ে সারবেন তারা। ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে প্রস্তুতি।

জানা যাচ্ছে, ভিকি কৌশল এবং ক্যাটরিনা কাইফ রাজস্থানের সওয়াই মাধোপুরের রাজকীয় ভেন্যুতে গাঁটছড়া বাঁধবেন। ৭ থেকে ১২ ই ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে তাদের বিয়ের অনুষ্ঠান। জাঁকজমকপূর্ণ সিক্স সেন্স ফোর্ট বারোয়ারায় দুই লাভবার্ডের বিয়ে হবে।

আপনার আমার মতো অনুরাগীদের তো আর তাদের বিয়ে সচক্ষে দেখার ভাগ্য হবেনা, তাই আজ আপনাদের জন্য বংট্রেন্ডের পর্দায় রইল সেই রাজকীয় প্রাসাদের অন্দরমহলের কিছু ছবি।

প্রাসাদ নিশ্চিত একটি মহিমান্বিত অনুভূতি দেয়। এটিতে তিনটি রেস্তোরাঁ রয়েছে যেখানে স্থানীয় পছন্দের এবং আন্তর্জাতিক খাবারের সাথে বেসপোক ককটেল এবং একটি রকমারি হুইস্কির সংগ্রহ রয়েছে।

সিক্স সেন্স ফোর্ট বারোয়ারার কেন্দ্রীয় প্রাঙ্গণটিকে একটি ঐতিহ্যবাহী বাগানে পুনর্গঠন করা হয়েছে , সেখানে রয়েছে আরও সব আদিবাসী গাছ। প্রাসাদটিতে একটি স্পাও রয়েছে যা পশ্চিমা প্রভাবের সাথে পূর্বের ওষুধের মিশ্রণ। এটি মূল মহিলা প্রাসাদ এবং সংলগ্ন মন্দিরগুলির মধ্যে অবস্থিত।

দুর্গটিকে একটি ঐতিহ্যবাহী সম্পত্তি হিসাবে উদ্ধার করা হচ্ছে এবং একটি অন্তরঙ্গ এবং মার্জিত অবলম্বনে পুনরায় কল্পনা করা হচ্ছে। ৭০০ বছরের পুরোনো এই রাজপ্রাসাদ যেকোনোও বিদেশের বড় মহল কেও হার মানাবে।

জানা যাচ্ছে ক্যাটরিনার বিয়ের লেহেঙ্গা ডিজাইন করছেন সেলিব্রেটি ডিজাইনার সব্যসাচী মুখোপাধ্যায়। রাজকীয় প্রাসাদের মতো এই রিসর্টের মধ্যে রয়েছে তিনটি বিলাসবহুল রেস্তোরাঁ।

এছাড়াও এই রাজবাড়ির বিশেষ আকর্ষণ হল সেন্ট্রাল কোর্টইয়ার্ড নামের একটি বিরাট এলাকা । এছাড়াও প্যালেসে রয়েছে বিলাসবহুল স্পা কর্নার। তবে এবারও বিয়ের জল্পনায় জল ঢেলে ক্যাট সুন্দরী জানিয়েছেন ‘এই একটা প্রশ্নের উত্তর আমি নিজেই গত ১৫ বছর ধরে খুঁজে যাচ্ছি । ভিত্তিহীন এমন খবর নিয়ে কেন মাতাতমাতি?’

Related Articles

Back to top button