ছবিবিনোদনভাইরাল

উপর থেকে নিচ সবই খোলামেলা! ট্রেন্ডের নামে অর্ধনগ্ন উর্ফি জাভেদ, ট্রোলের ঝড় নেটপাড়ায়

অভিনেত্রী না হলেও একঝটকায় সেলিব্রিটি হওয়াই যায়। ভাবছেন কিভাবে? তাহলে বলে রাখি জনপ্রিয় টেলিভিশন রিয়্যালিটি শো বিগবসের দৌলতে সেলেব্রিটি হয়ে যেতে পারেন যে কেউ। এই যেমন কিছুদিন আগে বিগবস ওটিটি-তে (Bigg Boss) আসার পর থেকেই পেজ থ্রির শিরোনামে বারং বার উঠে এসেছে উর্ফি জাভেদের (Urfi Javed) নাম। যদিও বিগবসে আসার আগে থেকেই ঠোঁটকাটা অভিনেত্রী হিসাবে চর্চা ছিলই।

কারোর কথাই গায়ে মাখেন না অভিনেত্রী, সেটা হাবভাব দেখলেই বোঝা যায়। বি টাউনে শিরোনামে কিভাবে থাকতে হয় সেটা ভালোভাবেই আয়ত্তে করে নিয়েছেন উর্ফি। নিত্য নতুন অদ্ভুত সমস্ত পোশাক পরে মিডিয়ার সামনে হাজির হয়ে শিরোনাম করছেন। যদিও এর ফলে প্রতিবারই কটাক্ষের মুখে পড়তে হয়েছে তাকে। তবে তাতে কিছুই যায় আসে না। নেটিজেনদের কটাক্ষ গায়ে না মেখেই বারবার বিতর্কিত পোশাকে হাজির হন অভিনেত্রী।

কিছুদিন আগেই ব্র্যালেট পরে রাস্তায় বেরিয়ে ফটোশুট সেরেছিলেন অভিনেত্রী। ল্যাম্পোস্টে সেটে, রাস্তার ধারের সিঁড়িতে বসে ও রাস্তায় দাঁড়িয়ে মোট চারটি ছবি শেয়ার করেছিলেন উর্ফি। আর ছবি শেয়ার করে জানতে চেয়েছিলেন কোন ছবি নেটিজেনদের বেশ পছন্দ।

এছাড়াও কখনো অভিনব কায়দায় শাড়ি পড়ে তো কখনো শর্ট ড্রেস পরে সোশ্যাল মিডিয়াতে ঝড় তুলতেও একেবারে সিদ্ধহস্ত হয়ে উঠেছেন তিনি। বিশেষত উর্ফির অদ্ভুত সব পোশাকে কখনো বক্ষদেশ তো কখনো নিম্নদেশ প্রায় উন্মুক্ত হয়ে পড়ে। যদি দেখে  কিছু লোকের ঘুম উড়ে যায় ঠিকই, তবে বাকিরা কিন্তু ট্রোল করতে ছাড়ে না।

এমনিতেই সোশ্যাল মিডিয়াতে সেলেব্রিটিদের নিয়ে ট্রোলিং একপ্রকার ট্রেন্ডে দাঁড়িয়েছে। অনেকেই ছবিতে লাভ রিয়াক্ট থেকে ফায়ার রিয়্যাকশন দেন। সেখানে উর্ফির এমন ছোট ছোট পোশাক পরে ঘুরে বেড়ানো দেখে প্রায়শই নেটিজেনরা ভিডিও ও ছবির কমেন্টে ট্রোল করেন তাকে। কেউ বলেন, ওই টুকুই বা পড়ার কি দরকার ছিল! না পড়লেও চলত। তো কারোর মতে, কাপড় পরে না সব খুলে দেয় বুঝতে পারি না।

 

Related Articles

Back to top button