ছবিবিনোদনভাইরাল

চেনো কি আমায়! ছবির এই পুচকি মেয়েই আজ সুপারহট মডেল, শিশু দিবসে ভাইরাল ছোট বেলার ছবি

আজ  আন্তর্জাতিক শিশু দিবস (Childrens Day)। আজকের দিনে সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে সেলিব্রেটি সকলকেই দেখা যায় নিজেদের ছোটবেলার নানান মুহূর্তের ছবি শেয়ার করছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social Media) ভাইরাল (Viral) হয়েছে এমনই এক সেলিব্রেটির ছোটবেলার ছবি (Childhood Photo)। বর্তমানে তিনি রীতিমতো সোশ্যাল মিডিয়া সেনসেশন।

যার যৌন আবেদনে কুপোকাত গোটা নেটপাড়া। হট অ্যান্ড সেক্সি পোশাক পরে  প্রায় রোজদিনই শিরোনামে উঠে আসেন এই অভিনেত্রী। এমনিতে তার ফ্যাশান সেন্স  থেকে পোশাক আশাক নিয়ে সমালোচনার শেষ নেই। যদিও সেসব খুব একটা গায়ে মাখেন না এই অভিনেত্রী। আজ শিশু দিবসের দিনে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে ছোটবেলার এককগুছ ছবি।

এদিন সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে নিয়েছিলেন তারই বোন আসফি জাভেদ (Asfi Javed)। এই এই পর্যন্ত পড়ে আশা করি অনেকেই আঁচ করতে পারছেন এখানে কার কথা বলা হচ্ছে। ঠিকই ধরেছেন কথা হচ্ছে বিতর্কের  শিরোমনি তথা অভিনেত্রী উর্ফি জাভেদ (Uorfi Javed) সম্পর্কে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল সেই ছবিতে উর্ফির ভোলাভালা লুক  দেখে তো একেবারে চোখ কপালে ওঠার জোগাড়  নেটিজেনদের।

কারণ বাচ্চা বেলার উরফির সাথে এখনকার উর্ফির পার্থক্য প্রায় আকাশ পাতাল। কোনভাবেই আগের সেই সরল শিশু উর্ফির সাথে এখনকার উর্ফির মিল খুঁজে পাচ্ছেন না নেটিজেনরা। উল্লেখ্য বাস্তব জীবনে উর্ফির  দুই বোন রয়েছে। একজন উরুশা এবং আর একজন আসফি। উর্ফির মতই সোশ্যাল মিডিয়াতে দারুণ সক্রিয় তারা।

এদিন আসফির শেয়ার করা ছবিতে দেখা যাচ্ছে মাথার দুপাশে সিঁথি  কাটা হাসি মুখের বাচ্চা উর্ফির পরনে রয়েছে লাল জামা। এছাড়াও আসফি পোস্ট থেকে জানা গিয়েছে ছোটবেলায় উর্ফি এবং তার বোন উরুশা দুজনেই সবসময় একই দেখতে পোশাক পরতেন। প্রসঙ্গত দুদিন  আগেই নগ্ন হয়ে ফটোশুট করে শোরগোল ফেলে দিয়েছিলেন উর্ফি। যার জন্য প্রাণনাশের হুমকিও পেয়েছিলেন তিনি।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by ASFI JAVED (@_asfi)

উর্ফির শেয়ার করা নগ্ন ফটোশুটের ভিডিওতে দেখা গিয়েছে তার স্তন হাত দিয়ে ঢাকা। তবে হাত দুটি কার তা স্পষ্ট নয়। এসব দেখার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনরা দাবি করেছেন বাদ দিয়ে দেওয়া হোক উর্ফিকে, ব্যান করে দেওয়া হোক তাকে।

Related Articles

Back to top button