বিনোদনভাইরালভিডিওসিরিয়াল

এ তো ক্রিকেটের অপমান! উমার খেলা দেখে খেপে লাল ক্রিকেটপ্রেমীরা

সারাদিন সবাই যতই কাজে ব্যস্ত থাকুন না কেন বিকেল গড়িয়ে সন্ধ্যা হতেই টিভিপর্দায় পছন্দের সিরিয়াল দেখতে বসে যান ছেন কমবেশি সকলেই।  সিরিয়াল এখন দর্শকদের বিনোদনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম। তাই প্রতিদিন টিভির পর্দায় পছন্দের সিরিয়াল না দেখলে গোটা দিনটাই যেন অসম্পূর্ণ থেকে যায় দর্শকদের।

বাংলা বিনোদন জগতের দর্শকদের সাথে কিন্তু বাংলা সিরিয়ালের সম্পর্ক আজকের নয়।  দর্শকরা বহুদিন ধরেই সিরিয়ালের দেখার জন্য পাগল।তবে এ কথা ঠিক আগের তুলনায় এখন বদলে গিয়েছে সিরিয়ালের বিষয়বস্তু। বদল এসেছে সিরিয়ালের বিষয়বস্তুতেও। এখন বেশিরভাগ সিরিয়ালেই দেখা যায় জোর দেওয়া হচ্ছে নারী কেন্দ্রিক চরিত্রগুলির র ওপরেই।

বাস্তব জীবনের মতোই এখনকার সিরিয়ালেও বিশেষ গুরুত্ব পাচ্ছেন মেয়েরা।  বাস্তব জীবনের মতোই সিরিয়ালেও মেয়েরা প্রমাণ করে দিচ্ছেন ‘যে রাঁধে সে চুলও বাঁধে’-এই প্রবাদ। বাংলা সিরিয়াল প্রেমীদের কাছে  ব্যাপক জনপ্রিয় এমনই একটি  সিরিয়াল হল ‘উমা’ (Uma)। মধ্যবিত্ত বাঙালি পরিবার থেকে উঠে আসা অত্যন্ত সাধারণ এমনি এক মেয়ে উমার স্বপ্ন  জাতীয় দলে (National Team) ক্রিকেট (Cricket) খেলবে সে। সিরিয়ালে অবশেষে স্বপ্ন পূরণ হয়েছে উমার।

দিন দু’দিন আগেই টিভির পর্দায় দেখানো হয়েছে উমার জাতীয় দলে ক্রিকেট খেলার সেই পর্ব।  এই পর্বে দেখা গিয়েছে ব্যাটে বলে সমান পারদর্শী উমা একার কাঁধেই এদিন ম্যাচ জিতিয়ে সকলের নয়নের মনি হয়ে উঠেছে। প্রথম বার জাতীয় দোলে খেলতে নেমেই চার ছয় মেরে ধুলোয় মিশিয়ে দিয়েছে প্রতিপক্ষ টিম কে।তারপর থেকেই উমার ব্যাটিং স্টাইল নিয়ে পরে গিয়েছে তুমুল শোরগোল।সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social Media) শুরু হয়েছে ব্যাপক ট্রোলিং(Trolling)।

জাতীয় মহিলা দলে ক্রিকেট খেলতে নেমেছেন নায়িকা অথচ খুঁটিনাটি বিষয় গুলোর দিকে মাথাই  ঘামাননি উমা সিরিয়ালের ডিরেক্টর, এই বিষয়টি সবচেয়ে বেশি অবাক করেছে নেটিজেনদের। কমেন্ট সেকশনে ক্রিকেটপ্রেমীদের অনেকেই দাবি করেছেন যে বলে উমা প্রতিপক্ষ ক্রিকেট টিমের সদস্য কে আউট করেছেন আসলে সেই বলটিই নাকি নো বল।  উমার  ক্রিকেট খেলার ধরণ দেখে তো খেপে লাল বাংলার ক্রিকেটপ্রেমীদের একটা বড় অংশ। এমনকি অনেকে অবিলম্বে সিরিয়াল বন্ধ করে দেওয়ায় দাবি পর্যন্ত তুলেছেন।

Related Articles

Back to top button