বিনোদনসিরিয়াল

 কন্যাদান করেছিল যে ভাই তার সাথেই সহবাস স্ত্রীর, এ কেমন বিচার! প্রশ্ন টেলি অভিনেতা করণ মেহরার 

বিনোদন জগতে সম্পর্ক যেন তাসের ঘর। আজ আছে কাল নেই-এর সংসারে সম্পর্ক কথাটাও বড্ড ঠুনকো হয়ে পড়েছে। একসময় সারাজীবন একে অপরের পাশে থাকার অঙ্গীকার করেছিল যারা এখন তারা একে অপরের মুখ পর্যন্ত দেখতে চান না। আমজনতা হোক কিংবা সেলিব্রেটি এমন উদাহরণ রয়েছে ভুরি ভুরি।

দাম্পত্য কলহে জড়িয়ে সম্প্রতি শিরোনামে উঠে এসেছেন হিন্দি টেলিভিশন জগতের এমনই একজন জনপ্রিয় অভিনেতা করণ মেহরা (Karan Mehra) এবং তার স্ত্রী নিশা রাওয়াল (Nisha Rawal)। করণ স্টার প্লাসের ‘ইয়ে রিশতা কেয়া খেলতা হ্যায়’-তে নৈতিক চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। বিয়ের ন’বছর পর ২০২১ সালে আলাদা হয়ে যান তারকা জুটি করণ-নিশা। করণের  বিরুদ্ধে গার্হস্থ্য হিংসার (Domestic Violence) অভিযোগ জানিয়েছিলেন তার স্ত্রী নিশা।

প্রসঙ্গত এই দম্পতির রয়েছে একরত্তি ছেলে। তার নাম কবিশ। গত ১৪ মাস ধরে এই ছেলের ভরণপোষণের দায়িত্ব নিজেই নিয়েছিলেন নিশা। সম্প্রতি বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতের ‘লক আপ’-এ এসে প্রকাশ্যেই করণের  বিরুদ্ধে একের পর এক অভিযোগ এনেছিলেন নিশা। পরবর্তীতে কিছুদিন আগে জেলেও গিয়েছিলেন করণ। যদিও তারপর জামিন পেয়ে গিয়েছেন করণ।

পরে  থানা পুলিশ সব সেরে করণ নিজেই সাংবাদিক বৈঠক ডেকেছিলেন। অভিনেতার কথায় গত ১৪ মাসে একের পর এক ঘটনার শিকার হয়েছিলেন তিনি তার খোঁজ কেউ রাখেনি। এবার ছেলেকে কাছে রাখার অধিকার চেয়ে প্রাক্তন স্ত্রীর বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ এনেছেন করণ। স্ত্রীর বিরুদ্ধে পাল্টা বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কে (Extra Meratial affair) জড়ানোর অভিযোগ তুলেছেন করণ।

এখানেই শেষ নয় করণের কথায় নিশা তার সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে। গত ১৪ বছর ধরে যাকে ভাই বলে বলেছেন আসলে নাকি তার সঙ্গেই পরকীয়ার সম্পর্কে রয়েছেন নিশা। অভিনেতা জানিয়েছেন ‘সেই ভাইয়ের নাম রোহিত সাথিয়া। বিয়ের সময় কন্যাদান করেছিল সে-ই।’

এরপর ক্ষোভ উগরে দিয়ে অভিনেতা জানান তারই চার কামরার ফ্ল্যাটে ওই লোকটার সাথেও থাকেন নিশা।তার জিনিসপত্র আর টাকা ব্যবহার করেই তার বিরুদ্ধে মামলা করেছে। শেষে অভিনেতার সংযোজন ‘এ কেমন বিচার? আমাদের মধ্যে এখনও আইনি বিচ্ছেদ পর্যন্ত হয়নি। আমি সুবিচার চাই।’

Related Articles

Back to top button