গসিপবিনোদনসিরিয়াল

শ্রীময়ীর জেরে ভুলতে বসেছেন আসল নাম! সিরিয়াল থেকে সিনেমা, কাজের অভিজ্ঞতা জানালেন টোটা রায়চৌধুরী

টলিউডের অভিনেতা টোটা রায় চৌধুরী (Tota Roy Chowdhury)। সিনেমার থেকে শুরু করে সিরিয়াল সর্বত্রই নিজের অভিনয়ের দক্ষতা দিয়ে দর্শকদের মন কেড়ে নিয়েছেন অভিনেতা। বর্তমানে তাকে শ্রীময়ী সিরিয়ালে (sreemoyee serial) দেখা যায় রোহিত সেনের চরিত্রে। আর সিরিয়ালের রোহিত সেনের চরিত্রে অভিনয় করে অভিনেতার জনপ্রিয়তা একেবারে গগনচুম্বী। সত্যি বলতে রোহিত সেন এতটাই জনপ্রিয়  হয়েছে যে নিজের আসল নামটাই ভুলতে বসেছেন অভিনেতা।

সিরিয়ালের পর্দায় যাকে দেখে রীতিমত ক্রাশ খেতে শুরু করেন মহিলারা সেই টোটা রায় চৌধুরীর বয়স এখন ৪৫। কি বিশ্বাস হল না তো? আসলে অনেকেই বিশ্বাস করতে পারেন না যে চল্লিশ পেরিয়ে গিয়েছেন অভিনেতা। জীবনের ৪৪ বসন্ত পেরিয়েও নিজেকে একেবারে ফিট রেখেছেন অভিনেতা। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বেশ কিছু প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন অভিনেতা।

Tota Roychowdhury টোটা রায়চৌধুরী

দীর্ঘ দিনের অভিনয়ের অভিজ্ঞতা থেকে শুরু করে কাজের পরিবেশ সম্পর্কে অনেক কিছুই জানিয়েছেন এদিন। তবে সবার আগে জানতে হবে রোহিত সেন সম্পর্কে কি মনে করেন টোটা রায়চৌধুরী! আসলে  সব ক্রেডিটটাই লেখিকা লীনা গাঙ্গুলিকে দিতে চেয়েছেন অভিনেতা। তাঁর মতে লেখিকার গল্পের জেরেই ঘরে ঘরে সমাদৃত হয়েছে তার  অভিনয়। অবশ্য  সিরিয়ালের রোহিত সেন বাদে ফেলুদা চরিত্রেও টোটা রায় চৌধুরীর অভিনয় বেশ জনপ্রিয়।

Tota Roychowdhury টোটা রায়চৌধুরী শ্রীময়ী

তবে জনপ্রিয়তা পেতে অনেকটা সময় লেগে গেল, এটাই আফসোস হয় মাঝে মধ্যে। তিনি ভাবেন আগে যদি এই সুযোগটা পেতেন  তাহলে হয়তো আরও আগেই জনপ্রিয়তা পাওয়া যেত। তবে সবুরে মেওয়া ফলেছে সেটা স্বীকার করেছেন অভিনেতা। বর্তমানে টেলিভিশনের পাশাপাশি টলিউড এমনকি বলিউড থেকেও ডাক আসে তার। এপ্রসঙ্গেও বেশ কিছু কথা জানিয়েছেন টোটা।

Tota Roychowdhury টোটা রায়চৌধুরী

টোটার মতে, বাংলার অভিনেতা অভিনেত্রীদের মধ্যে দারুন প্রতিভা রয়েছে। বলিউডে যেখানে প্রায় ৬০ দিন লাগে শুটিং শেষ করতে সেখানে বাংলার আর্টিস্টরা সেটা ১৫-২০ দিনে শেষ করে দেয়। এছাড়া অভিনয়ের দক্ষতা থেকে শারীরিক গঠন সবই রয়েছে বাংলার আর্টিস্টদের। সেই কারণেই আমাদের মত অভিনেতাদের ডাক আসে বারেবারে। তবে আরো একটা কারণ রয়েছে সেটা হল নতুন মুখের খোঁজ, সেই কারণেও ডাক আসে।

Related Articles

Back to top button