গসিপবিনোদন

ভালোবাসার কাছে হেরেছে বয়সের তফাৎ! বাড়িতে না মানলেও লড়াই করেই দীপঙ্করের সাথে, জানালেন দোলন

টলিউডের জনপ্রিয় তারকা জুটিদের (Tollywood couple) মধ্যে একজন হলেন দীপঙ্কর দে (Deepankar De) এবং দোলন রায়ের (Dolon Roy) জুটি। দু’জনের মধ্যে ২৪ বছরের বয়সের ফারাক থাকলেও, ভালোবাসা কিন্তু ভরপুর রয়েছে। সত্যিকারের ভালোবাসার পথে যে বয়স যে কোনও বাধা হতেই পারে না তা প্রমাণ করেছেন তাঁরা।

তবে দোলন যখন দীপঙ্করের সঙ্গে সাত পাক ঘুরেছিলেন, তখন কিন্তু কম চর্চা হয়নি। তাঁদের মধ্যেকার বয়সের ফারাক নিয়েও  চর্চা হয়েছিল বিস্তর। সম্পর্কের শুরুতে কতখানি লড়াই করতে হয়েছিল তাঁদের? ‘দিদি নম্বর ওয়ান’এর মঞ্চে এসে সেই নিয়ে মুখ খুলেছেন দোলন নিজে।

dolon roy dipankar dey

টলিপাড়ার এই তারকা জুটির সম্পর্কের শুরু হয়েছিল ১৯৯৭ সালে। কাজের সূত্রে বাইরে গিয়েই সম্পর্ক শুরু হয়েছিল। সেই বছরই আবার ‘সংঘাত’ ছবির জন্যজাতীয় পুরস্কারও পেয়েছিলেন দোলন। তবে দেশের বাইরে থাকার কারণে পুরস্কার নিতে যেতে পারেননি অভিনেত্রী। গিয়েছিলেন তাঁর মা। অভিনেত্রীকে প্রশ্ন করা হয়, দীপঙ্করের সঙ্গে এত বছরের পার্থক্য হওয়ায় বাড়ির লোকের মেনে নিতে অসুবিধা হয়নি? তাঁদের প্রথম প্রতিক্রিয়া কেমন ছিল?

Deepankar De and Dolon Roy

দোলন সাফ বলেন, ২৪ বছরের বড় দীপঙ্করের সঙ্গে তাঁর প্রেমের সম্পর্কের কথা তাঁর মা মেনে নেননি। শুধুমাত্র অভিনেত্রীর মা’ই নন, বাড়ির কেউই মানেননি। তবে সময়ের ধীরে ধীরে প্রত্যেকে স্বীকার করে নিয়েছেন তাঁদের ভালোবাসা।

Deepankar De and Dolon Roy

টলি অভিনেত্রী বলেন, ‘হ্যাঁ, অসুবিধা হয়েছিল তো। মা তো প্রথমে মেনেও নেননি। পরিবারের কেউ মানেনি। তবে আস্তে আস্তে মেনে নেন প্রত্যেকে। তবে ও (দীপঙ্কর) আমার থেকে যেহেতু বয়সে অনেকখানিই বড় তাই সব সময় আগলে আগলে রাখে। কোথায় গিয়ে কী বলতে হবে সব কিছু গাইড করে দেয়’।

১৯৯৭ সাল থেকে সম্পর্কে থাকার পর ২০২০ সালে কাগজে কলমে বিয়ে সারেন দীপঙ্কর এবং দোলন। এখন দু’জনেই নিজেদের কাজ নিয়ে ব্যস্ত আছেন। পাশাপাশি চুটিয়ে সংসার তো করছেনই। সব মিলিয়ে কাজ আর সংসার মিলিয়ে বেশ সুখেই রয়েছেন দু’জনে।

Back to top button