বিনোদনভিডিও

অনেক কিছু করার ছিল মেয়েটার! ঐন্দ্রিলার প্রয়াণের পর প্রথমবার প্রকাশ্যে এসে কান্নায় ভেঙে পড়ল মা

আজ থেকে দু’সপ্তাহ আগে এই পৃথিবী থেকে চিরতরে বিদায় নিয়েছেন টলিউডের নামী অভিনেত্রী (Tollywood actress) ঐন্দ্রিলা শর্মা (Aindrila Sharma)। দেখতে দেখতে প্রায় প্রত্যেকে নিজের স্বাভাবিক জীবনে ফিরে গেলেও অভিনেত্রীর পরিবার এবং প্রিয়জনদের সময়টা এখনও সেই দু’সপ্তাহ আগের রবিবারের ১২:৫৯ মিনিটেই আটকে রয়েছে। জলজ্যান্ত মেয়েকে হারিয়ে এখনও নিজেদের সামলে উঠতে পারেনি ঐন্দ্রিলার মা-বাবাও।

দু’বার ক্যান্সার আক্রান্ত হওয়ার পরেও সেই লড়াইয়ে জয়ী হয়ে ফিরে এসেছিলেন ঐন্দ্রিলা। কিন্তু নভেম্বর মাসে ব্রেন স্ট্রোক হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পরেও সবাই আশা করেছিলেন এবারও ঠিক হাসি মুখে বাড়ি ফিরে আসবে ‘ফাইটার’ মেয়েটা। কিন্তু তেমনটা আর হল না। ২০ দিন পর বাড়ি ফিরলেন বটে, তবে শববাহী গাড়ি করে।

tollywood actress Aindrila Sharma last rituals

‘জিয়ন কাঠি’ অভিনেত্রীর মৃত্যুর পর দু’সপ্তাহ কেটে গেলেও শর্মা পরিবার এখনও তাঁর স্মৃতির মধ্যে তাঁকে খুঁজে বেড়াচ্ছে। কখনও মেয়ের জন্য চোখের জল ফেলছেন, কখনও আবার মেয়ে কষ্ট পাবে ভেবে নিজেরাই নিজেদের চোখের জল মুছে নিচ্ছেন। সম্প্রতি যেমন ঐন্দ্রিলার মৃত্যুর পর প্রথমবার প্রকাশ্যে এসে কান্নায় ভেঙে পড়েন তাঁর মা (Aindrila Sharma mother) শিখা শর্মা।

টলি অভিনেত্রীর মৃত্যুর পর থেকে তাঁর পরিবারের লোকেরা নিজেদের একপ্রকার গুটিয়েই রেখেছিলেন। তবে এবার ‘ঐন্দ্রিlife সন্ধ্যা’ নামের এক অনুষ্ঠানে সবার সামনে অভিনেত্রীকে নিয়ে মুখ খুললেন তাঁর মা। সোশ্যাল মিডিয়ার সৌজন্যে বেশ ভাইরাল হয়েছে সেই ভিডিও। সেখানে দেখা যাচ্ছে, মেয়েকে নিয়ে কথা বলতে বলতে কানায় ভেঙে পড়ছেন শিখাদেবী (Shikha Sharma)।

Aindrila Sharma once revealed her mother was aslo cancer survivor

ঐন্দ্রিলাকে সুস্থ করে বাড়ি না ফিরিয়ে আনতে পারার আক্ষেপ স্পষ্ট শোনা যায় তাঁর মায়ের গলায়। মঞ্চে বসেই শিখাদেবী কাঁদতে কাঁদতে বলেন, ‘ভালোই ছিল, আবার কাজও করছিল। হঠাৎ ব্রেন স্ট্রোক হয়ে ও যে এভাবে চলে যাবে ভাবতে পারিনি… অনেক কিছু করার ছিল মেয়েটার’।

এরপর নিজেকে একটু সামলে মেয়ের স্মৃতিচারণা করতে থাকেন শিখাদেবী। কীভাবে কোভিডের সময় ঐন্দ্রিলা এবং সব্যসাচী বহু মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন সেকথাও সকলের সঙ্গে ভাগ করে নেন তিনি। সব শেষে ফের একবার কান্নায় ভেঙে পড়ে শিখাদেবী আক্ষেপের সুরে বলেন, ‘বিধির দড়ি টানাটানিতে আমরা হেরে গেলাম। একটা প্রাণচঞ্চল মেয়ে, ছটফটে মেয়ে আমাদের ছেড়ে চলে গেল’।

Related Articles

Back to top button