গসিপবিনোদনসিনেমা

মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান, অভাবেই কেটেছে শৈশব! নিজের দমে আজ টলিউডের সফল অভিনেতা সুপ্রিয় দত্ত

বিনোদনের প্রসঙ্গ উঠলেই বাঙালির মনে সবার আগে আসে টলিউডের সিনেমার (Tollywood Cinema) কথা। আর টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে কিছু দারুন প্রতিভাবান তারকা রয়েছেন যারা নিজেদের দক্ষ অভিনয়ে বারেবারে দর্শকদের মন জিতেছেন। সুপারস্টার না হলেও টলিউডের বিখ্যাত অভিনেতা সুপ্রিয় দত্ত (Supriyo Dutta)। খলনায়ক থেকে কমেডি চরিত্র এমনকি নায়কের বাবার চরিত্রেও বহুবার দেখা মিলেছে পর্দায়। যতবারই অভিনয় করেছেন দর্শকদের মুগ্ধ করেছেন।

আজ টলিউডের সফল অভিনেতাদের মধ্যে অন্যতম হলেও শুরুটা খুব সহজ ছিল না। গ্রামের এক নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারেই জন্ম হয়েছিল অভিনেতার।মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান হওয়ায় অভাবের মধ্যে কেটেছিল শৈশব। তবে ছোট থেকেই পড়াশোনায় বেশ মেধাবী ছিলেন অভিনেতা। জানা যায় সংসারের অভাবের কারণে একসময় অভিনেতার বাবাকে চপ বিক্রি করতে হয়েছিল। তখন বাবাকে সাহায্য করতে তিনিও।

তবে ছোট থেকেই পড়াশোনা ভালো হলেও অভিনয়ের প্রতি আগ্রহ ছিল। মা বাবাও উৎসাহ দিতেই পড়াশোনার জন্য, বলতেন ভালো করে পড়াশোনা করার জন্য। তবে অভিনয়ের প্রতি টান থেকেই একসময় কলকাতার নাট্য জগতে প্রবেশ করেন অভিনেতা। নাটক ও থিয়েটারে কাজের পাশাপাশি শিখতে থাকেন অভিনয়।

নাটকের মঞ্চ থেকেই মিলেছিল টলিউডে প্রবেশের সুবর্ণ সুযোগ। বিখ্যাত পরিচালক রাজ চক্রবর্তীর নজরে পড়েন অভিনেতা। এরপর ২০০৮ ‘চিরদিনই তুমি যে আমার’ ছবিতে প্রথম কমার্শিয়াল ধারায় দেখা মেলে তার। যদিও এর আগে ২০০৬ সালে সুমন মুখোপাধ্যায়ের ছবি ‘হারবার্ট’ এও অভিনয় করেছিলেন তিনি। এরপর একে একে চ্যালেঞ্জ, যে ছক্কা, দুই পৃথিবী, সেদিন দেখা হয়েছিল এর মত একাধিক ছবিতে অভিনয় করে দর্শকদের মন জিতে নেন সুপ্রিয় দত্ত।

টলিউডের ছবিতে কখনো খলনায়কের চরিত্র তো কখনো কমেডি চরিত্রে দেখা গিয়েছে সুপ্রিয় দত্তকে। তো কখনো আবার নায়কের বাবার চরিত্রে দুর্দান্ত অভিনয় করে দর্শকদের মন জিতেছেন। আজ টলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতাদের মধ্যে একজন হয়ে গিয়েছেন তিনি। অভিনেতাকে শেষ দেখা গিয়েছিল ড্রাকুলা স্যার ছবিতে। তবে ডিসেম্বর থেকেই ‘বিজয়ার পরে’ ছবির শুটিং চালু হবার কথা। এই ছবিতে দেখা মিলতে পারে অভিনেতার।

Related Articles

Back to top button