বিনোদনসিনেমা

জিতের বন্ধন সিনেমার ছোট্ট অংশু এখন হ্যান্ডসাম হাঙ্ক, রইল টলিউডের শিশুশিল্পীর এখনকার অদেখা ছবি

একটা সময় ছিল যখন যে কোন সিনেমার বিশেষ করে বাংলা সিনেমার ক্ষেত্রে নায়ক-নায়িকা থেকে শুরু করে খলনায়কদের মতই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে দেখা যেত শিশু শিল্পীদের (Child Artist)। বাংলা চলচ্চিত্রের ইতিহাস ঘাঁটলেই দেখা যাবে এই শিশু শিল্পীদের কিন্তু গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে সবসময়ই। তা সে কিংবদন্তি পরিচালক সত্যজিৎ রায়ের ‘সোনার কেল্লা’ হোক কিংবা সত্যজিৎ পরবর্তী যুগের ‘রাজু আঙ্কেল’ অথবা এখনকার দিনের ‘হামি’ হোক।

বরাবরই কিন্তু এই শিশু শিল্পীদের অভিনয় মুগ্ধ করেছে দর্শকদের। প্রসঙ্গত ২০০৫ সালে হরনাথ চক্রবর্তী পরিচালিত এই ‘রাজু আঙ্কেল’ সিনেমার বাচ্চা ছেলেটি কে মনে আছে নিশ্চই। এই সিনেমায় প্রসেনজিতের সাথে শিশুশিল্পী চরিত্রে দেখা গিয়েছিল অংশু বাচ (Anshu Bach)-কে। সেসময় বাংলা ইন্ডাস্ট্রির শিশু শিল্পীদের মধ্যে অত্যন্ত জনপ্রিয় ছিলেন তিনি। তবে সেদিনের সেই বাচ্চা ছেলে আজ কিন্তু অনেক বড় হয়ে গিয়েছেন।

এই খুদে শিল্পী ১৯৯৫ সালে জন্মগ্রহণ করেন কলকাতায়। অংশুর বর্তমান বয়স ২৭ বছর। ছোটবেলা থেকেই অভিনয়ের প্রতি ঝোঁক ছিল তাঁর। তাই অল্প বয়স থেকেই পাড়ায় এবং স্কুলের নাটকে অভিনয় করতেন তিনি। সেসময় পাড়ার একজন তাকে জিতের সিনেমায় শিশুশিল্পীর  চরিত্রে অডিশন দেওয়ার কথা জানান।  কিন্তু ততদিনে নাকি নির্মাতারা একজন অভিনেতাকে  সিলেক্ট করে ফেলেছিলেন। তাই অংশুকে নিয়ে তার বাড়ি ফিরে আসেন।কিন্তু পরে তাদের আবার ডেকে পাঠানো হয়।

এরপর অডিশন নিয়ে সিলেক্ট করা হয় তাকেই। ২০০৩ সালে হরনাথ চক্রবর্তী ‘নাটের গুরু’ সিনেমার হাত ধরেই  অভিনয় জগতের হাতেখড়ি হয় অংশুর। পরবর্তীতে ২০০৪ সালে রবি কিনাগী পরিচালিত জিৎ-কোয়েল অভিনীত ‘বন্ধন’ (Bandhan) সিনেমায় অভিনয় করে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন অংশু। এই সিনেমায় ভিক্টর ব্যানার্জী, জিৎ,কোয়েলে সকলের সাথেই তাল মিলিয়ে অভিনয় করে নজর কেড়েছিলেন অংশু। সেই থেকে তাকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। শিশুশিল্পী হিসাবেই অভিনয় করেছেন একের পর এক জনপ্রিয় সিনেমায়। জিৎ(Jeet) থেকে শুরু করে প্রসেনজিৎ(Prosenjit) এমনকি মিঠুন চক্রবর্তীর (Mithun Chakraborty) সাথে পর্দায় দেখা গিয়েছিল এই অভিনেতাকে।

বন্ধন ছাড়াও প্রসেনজিৎ-রচনা অভিনীত  ‘অগ্নি’, ‘রাজু আঙ্কেল’, এমনকি মিঠুন চক্রবর্তীর বিখ্যাত সিনেমা ‘এমএলএ ফাটাকেষ্ট’-তেও দেখা গিয়েছিল অভিনেতাকে।শিশুশিল্পী হিসাবে  ক্লাস টেন পর্যন্ত মোট ২০ টি সিনেমায় অভিনয় করার পর বিরতি নিয়েছিলেন দীর্ঘ ছয় বছরের। তারপর স্নাতক শেষ করে কাজ করেছেন বেশ কয়েকটি শর্ট ফিল্ম এবং ওয়েব সিরিজে। ২০১৭ সালের ‘টেককেয়ার’ নামে একটি শর্ট ফিল্মে অভিনয় করেছিলেন। এই সিনেমাটি ইউটিউবে ব্যাপক ভিউ পেয়েছিল। এছাড়া জনপ্রিয় টিভি অভিনেত্রী প্রিয়মের সাথে ‘মনসুন মেলোডিজ’ নাম একটি ওয়েব সিরিজেও  অভিনয় করেছিলেন অংশু। এছাড়াও স্টার জলসার জনপ্রিয় সিরিয়াল ‘কে আপন কে পর’- এ অরিত্র নামের একজন খলনায়কের চরিত্রেও অভিনয় করতে দেখা গিয়েছিল তাকে।

তবে অভিনেতা ছোটবেলায় একজন  শিশুশিল্পী হিসেবে যতটা জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন এখন কিন্তু তার সেই জনপ্রিয়তা আর নেই। অংশুর কোথায় ছোটবেলায় অভিনয় করতে এসে স্ট্রাগল কি জিনিস তা তিনি বুঝতে পারেননি কিন্তু এখন তিনি বড় হয়ে তিনি দেখছেন চারদিকে অনেক কম্পিটিশন বেড়ে গিয়েছে তাই নিজের জায়গা পাকা করতে রীতিমতো স্ট্রাগল করতে হচ্ছে তাকে। তবে অভিনেতা জানিয়েছেন টলিউডের (Tollywood) মধ্যে  নেপোটিজম নামের  জিনিসটা তিনি কখনোই অনুভব করেননি।

Related Articles

Back to top button