খবরবিনোদনসিরিয়াল

দর্শকদের জন্য দুঃসংবাদ! ঝামেলার জেরে হটাৎই বন্ধ ‘তিতলি’ সিরিয়ালের শুটিং

বাঙালি দর্শকদের বিনোদনের ডেলি ডোজ হল সিরিয়াল। সন্ধ্যে নামলেই হাতের কাজ সেরে সিরিয়াল দেখতে হাজির হন সকলে। নান স্বাদের গল্পের ভিড়ে কিছু কিছু সিরিয়ালের গল্প মন কেড়ে নেয়। এমনই একটি জনপ্রিয় সিরিয়াল হল ষ্টার জলসার ‘তিতলি (Titli)’। শারীরিক প্রতিবন্ধকতাকে হারিয়ে আকাশে ওড়ার প্রতিজ্ঞা তিতলির সেই নিয়েই সিরিয়ালের কাহিনী। ধীরে ধীরে দর্শকদের মন জয় করেছিল এই কাহিনী।

কিন্তু জানা যাচ্ছে হটাৎই বন্ধ হয়ে গিয়েছে সিরিয়ালের শুটিং। গত বছর করোনা মহামারীর সময় লকডাউনের সময় থেকেই টলিপাড়ায় শুটিং নিয়ে নানা সমস্যা সামনে এসেছিল। সিরিয়ালের প্রযোজকদের সাথে টেকনিশিয়ান ও কলাকুশীলীদের ফেডারেশনের দ্বন্ধ শুরু হয়েছিল। এর জেরে আর্থিক ক্ষতি যেমন হয়েছিল তেমনি দর্শকেরাও বিরত হয়েছিল সিরিয়ালের নতুন পর্ব দেখার থেকে। 

এরপর বৈঠকে সাময়িক ভাবে কাজ শুরুর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। তবে গতকাল অর্থাৎ ১৩ই সেপ্টেম্বর প্রযোজকদের সাথে ফেডারেশনের মিটিয়ে আবারো ভবিষ্যৎ অন্ধকার সিরিয়ালের। শুটিং ফ্লোরের কর্মীদের  পারিশ্রমিক নিয়ে শুরু হয় অশান্তি। এর জেরে সাময়িকভাবে বন্ধ হয়ে গিয়েছে ‘তিতলি’ সিরিয়ালের শুটিং। সিরিয়ালের শুটিং বন্ধ হতে স্বাভাবিকভাবেই চিন্তায় পড়ে যান প্রযোজক সুশান্ত দাস।

অবশ্য শেষমেশ খুশির খবর মিলেছে। জানা গিয়েছে সাময়িকভাবে বন্ধ থাকলেও আবারো চালু হয়েছে শুটিংয়ের কাজ। তবে প্রযোজক ও ফেডারেশনের মধ্যেকার মনবিরোধ সম্পর্কে যেমনটা জানা যাচ্ছে পারিশ্রমিকই হচ্ছে মূল বিষয়। লকডাউনে কলাকুশলীদের পারিশ্রমিক দিয়েছেন প্রযোজকেরা। তবে কাজ না করে টাকা নেওয়াতে সন্মতি নেই ফেডারেশনের। যদি টাকা দেওয়াও হয় তাহলে সেটা ফেরত পাঠানো হবে, এমনটাই জানিয়েছিল ফেডারেশন।

এই প্রস্তাব নিয়ে সমস্যার শুরু হলে প্রযোজকরা জানান, পরে কাজ করিয়ে কেটে নেওয়া হবে টাকা। এই প্রস্তবে রাজিও হয়েছিল ফেডারেশন। তবে মুশকিল হল সম্প্রতি সিরিয়ালের শুটিংয়ের পারিশ্রমিক কাটতে শুরু হ তাই শুরু হয় বিরোধ। যার জেরেই আচমকা বন্ধ হয়ে যায় শুটিং। ফেডারেশনের পক্ষ থেকে এবিষয়ে আবারো বৈঠকের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

Related Articles

Back to top button