গসিপবিনোদন

টলিপাড়ার নায়িকাদের কাজ খাচ্ছেন সৃজিত পত্নী! এবার মন্টু পাইলটে সোলাঙ্কির জায়গা নিচ্ছেন মিথিলা

আগে এমন একটা সময় ছিল যখন টিভি মানেই বিশাল ব্যাপার! কিন্তু যত দিন এগিয়েছে ততই যেন ধীরে ধীরে গুরুত্ব কমেছে টিভির। ঠিক যেমন প্রথাগত সিনেমা আর সিনেমা হলকে পিছনে ফেলে দিচ্ছে ওটিটি প্লাটফর্ম (OTT Platform) আর ওয়েবসিরিজ (Web Series)। আর ইন্টারনেট স্মার্টফোনের এতটাই উন্নতি হয়েছে যে এখন টিভি জিনিসটা হাতের মুঠোয় পকেটের ভেতরে চলে এসেছে।

বাংলায় এমনই এক জনপ্রিয় ওটিটি মাধ্যম হল ‘হইচই’ (Hoichoi)। এই প্ল্যাটফর্মের অসংখ্য স্বাধীন ছবি ওয়েব সিরিজ আজও দর্শকদের চোখে লেগে রয়েছে। হইচই- এর এমনই এক জনপ্রিয় ওয়েব সিরিজ হল ‘মন্টু পাইলট ‘ (Montu pilot)। মূলত রেড লাইট এড়িয়া অর্থাৎ যৌন পল্লীর মেয়েদের জীবনের টানাপোড়েন নিয়ে তৈরি এই সিরিজটি নির্মিত হয়েছিল ২০১৯ সালে।

এই সিরিজে মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন টলিপাড়ার উঠতি অভিনেত্রী সোলাঙ্কি রায় (Solanki Roy) এবং সৌরভ দাস (Sourav Das)। টালিগঞ্জের পরিচালক দেবালয় ভট্টাচার্য পরিচালিত এই সিরিজ দর্শকদের মধ্যে সাড়া ফেলে দিয়েছিল। পাশাপাশি প্রবল প্রশংসা কুড়িয়েছিল সৌরভ এবং সোলাঙ্কির তুখোড় অভিনয়ও।

এবার দর্শকদের চাহিদা মেটাতেই নির্মিত হচ্ছে মন্টু পাইলটের দ্বিতীয় সিজন। তবে সূত্রের খবর, এই সিজনে সিরিজ থেকে বাদ পড়ছেন অভিনেত্রী সোলাঙ্কি রায়, আর তার জায়গা নিতে চলেছেন ওপার বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী তথা টলি পরিচালক সৃজিত মুখার্জির স্ত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা।

প্রতিষ্ঠিত এক সংবাদ মাধ্যমের খবর অনুযায়ী, সোলাঙ্কি নিজেই সরে দাঁড়িয়েছেন এই বহুল আলোচিত সিরিজ থেকে৷ আর সেই জায়গাতেই নেওয়া হয়েছে সৃজিত পত্নীকে। আগের মতোই, পাইলট হিসেবে থাকবেন অভিনেতা সৌরভ দাসই। জানা যাচ্ছে, মিথিলার আগে নাকি এই প্রস্তাব নিয়ে যাওয়া হয়েছিল কৌশানি মুখার্জি, দেবলিনা চ্যাটার্জি ও আনুশা বিশ্বনাথনের কাছেও কিন্তু তারা কেউই রাজী না হওয়ায় হাল ধরেছেন মিথিলা।

প্রসঙ্গত, সৃজিতের ঘরণী হওয়ার পর থেকেই বাংলা এবং বাংলাদেশ উভয় জায়গাতেই তুমুল চর্চিত মিথিলা৷ এছাড়াও বাংলাদেশের নামকরা অভিনেত্রী হওয়ার দরুণ মিথিলার একটি নির্দিষ্ট ফ্যানবেস আগে থেকেই রয়েছে বাংলাদেশে, এখন তা দুই বাংলাতেই বিস্তৃত। এছাড়াও অভিনেত্রী হওয়ার পাশাপাশি মিথিলা একজন মডেল, গায়িকা, সঞ্চালক, লেখক এবং সমাজকর্মী। মিথিলার লেখা শর্ট ফিল্ম সবক্ষেত্রেই সমাদৃত হয়েছিল।

Related Articles

Back to top button