গসিপবিনোদনভিডিওসিনেমা

সুপারস্টার হলেও বিন্দুমাত্র অহংকার নেই, মাটির মানুষ রাজনীকান্ত সম্পর্কে এই কথা জানলে

দক্ষিণী সুপারস্টার রজনীকান্ত (Rajnikant) নামটা সবার কাছেই পরিচিত। যে ছবিতে রাজনীকান্ত রয়েছে সেই ছবি যে সুপারহিট হবে সেটা আগেভাগেই বোঝা যায়। তবে সিনেমার পর্দায় ঘনকালো এক মাথার চুল ওয়ালা হান্ডসাম হিরোর থেকেও বাস্তবে একেবারেই দেখতে আলাদা অভিনেতা। তবে অভিনয়ের প্রতিভার কাছে চেহারা বাধা হয় দাড়ায়নি। আজ সিনেমার দৌলতে হাজার হাজার কোটি টাকার মালিক হলেও অভিনেতার অহংকার নেই।

একসময় একটা অভিনয়ের সুযোগের জন্য শুটিং ফ্লোরে বসে থাকতে হত তাঁকে।সেখান থেকে প্রথম সুযোগেও নিজেকে প্রমাণ করে আজ দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রির থালাইভা তিনি। ২০১০ সালে বলিউডের বিশ্ব সুন্দরী অভিনেত্রী ঐশ্বর্য রাইয়ের (Aishwarya Rai) সাথে ‘রোবট’  ছবিতে কাজ করেছিলেন রজনীকান্ত। ছবিটি রিলিজের পর দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রি তো বটেই হিন্দি ইন্ডাস্ট্রিতেও সুপারহিট হয়েছিল।

তবে রজনীকান্তের থেকে বয়সে ২৩ বছরের ছোট রজনীকান্ত। নিজের থেকে এত কম বয়সের অভিনেত্রীর সাথে অভিনয়ের জন্য অনেকে অনেক কথা বলেছিল। ছবির প্রোমোশনের সময় রজনীকান্ত নিজেই সেই কথা স্বীকার করেছিলেন। মঞ্চে উঠে বক্তব্য রাখার সময় তিনি নিজেই বলেন যে ব্যাঙ্গালোরে থাকার সময় কিভাবে তারই এক বন্ধু বিশ্বাসই করতে পারছিল না যে ঐশ্বর্য রাইয়ের বিপরীতে হিরো রজনীকান্ত।

Rajnikant Aishwarya in Robot

অভিনেতা জানান, নন্দুলাল নামের ওই ব্যক্তি প্রথমেই এসে জিজ্ঞাসা করেছিল আরে রজনী তোমার চুল কোথায় গেল? তো আমি বললাম যে ঝরে গেছে। এরপর সে বলে রিটায়ারমেন্ট লাইফ এউপভোগ করছি, তখন জানাই যে ছবির জন্য শুটিং চলছে। ঐশ্বর্য রাইয়ের সাথে রোবট নামের ছবিতে কাজ করছি। শুনেই সে প্রশ্ন করেছিল হিরো কে? আমি হিরো বলতেই পুরো চুপ। কিছুক্ষণ চুপ থেকে বাই বাই বলে চলে যায়। আর যাবার সময় বাইরে বলতে থাকে, কি হয়েছে ঐশ্বর্য রাইয়ের? অভিষেক বচ্চনের কি হয়েছে? সেও নাহয় বাদ দিলাম অমিতাভ বচ্চনের কি হয়েছে?’

থালাইভার মুখে এই কাহিনীর বিবরণ শুনে উপস্থিত অমিতাভ বচ্চন ও ঐশ্বর্য দুজনেই হেসে গড়াগড়ি খাওয়ার জোগাড় ততক্ষণে। এই ঘটনার ভিডিওটি নেটমাধ্যমে প্রকাশ্যে আসতেই ব্যাপকভাবে ভাইরাল হয়ে পড়েছিল। যেখানে অনেক তারকারা নিজেদের বয়স হলেও চেহারা বা লুকস নিয়ে কটাক্ষ সহ্য করতে পারেন না সেখানে হাসি মজার চলেই ব্যাপারটা তুলে ধরলেন তিনি। সত্যিই মাটির মানুষ রজনীকান্ত, এই বলে অনেকেই ভিডিও দেখে তাঁর প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছিল।

Related Articles

Back to top button