ওয়েব সিরিজবিনোদনসিনেমা

ভারতের প্রথম ট্রান্সজেন্ডার মায়ের চরিত্রে সুস্মিতা সেন! ফার্স্ট লুক প্রকাশ্যে আসতেই ভাইরাল 

বলিউড অভিনেত্রী সুস্মিতা সেন (Sushmita Sen)। তিনিই প্রথম ভারতীয় যিনি মাত্র ১৮ বছর বয়সে ফেমিনা মিস ইন্ডিয়ার মুকুট জিতেছিলেন। তার ঠিক ২ বছর পরেই ১৯৯৬ সালে ‘দস্তক’ সিনেমা দিয়ে বলিউডে ডেবিউ করার পর একের পর এক হিট সিনেমা উপহার দিয়ে দর্শকদের মন জয় করেছেন তিনি।

তবে বহুদিন হয়েছে বড়পর্দায় দেখা নেই অভিনেত্রী সুস্মিতা সেনের।  দীর্ঘদিন পর আজ থেকে দুবছর আগে ২০২০ সালে ওয়েব সিরিজ ‘আরিয়া’ (Aarya) দিয়ে পর্দায় কামব্যাক করেছিলেন। সুস্মিতা। এই ওয়েব সিরিজ দর্শক মহলে এতটাই জনপ্রিয়তা পায় যার ফলে এক বছর পর ওয়েব সিরিজের দ্বিতীয় সিজন নিয়ে আসেন নির্মাতারা।
এছাড়া এই ওয়েব সিরিজের সিজন টু দেখে শেষে আভাস মিলেছিল খুব তাড়াতাড়ি আসতে চলেছে তৃতীয় সিজন।যা দেখার অপেক্ষায় রয়েছেন অসংখ্য অনুরাগী। প্রসঙ্গত এরই মধ্যে কিছুদিন আগে অভিনেত্রী সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছিলেন ‘সান সেট সেন রাইজ’ শুধু তাই নয় সেইসাথে তিনি আরও লিখেছিলেন একটি নতুন ওয়েব সিরিজের শুটিং করার জন্য তিনি প্রস্তুত হচ্ছেন যেটা তার মনের ভীষণ কাছের।
এই পোস্ট দেখার পরে অনেকেই ভেবে নিয়েছিলেন খুব সম্ভবত আসতে চলেছে  আরিয়ার সিজন থ্রি। কিন্তু না আজ এই সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট এর মধ্যে দিয়ে সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়েছেন সুস্মিতা নিজেই। আসলে ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে সুস্মিতার নতুন ওয়েব সিরিজ ‘তালি’র শুটিং। এই মুহূর্তে পুনেতে চলছে অভিনেত্রীর ওয়েব সিরিজের শুটিং।
ছটি পর্বের এই ওয়েব সিরিজে  দেখানো হবে ট্রান্সজেন্ডার শ্রী গৌরী সাওয়ান্তের বায়োপিক। সেই সাথে অভিনেত্রী জানিয়েছেন ‘এত সুন্দর একজন মানুষকে ফুটিয়ে তোলার এবং তার গল্পকে গোটা বিশ্বের সামনে নিয়ে আসার বিশেষ অধিকার পাওয়ার চেয়ে আর কিছুই আমাকে গর্বিত আর কৃতজ্ঞ করে তোলে না’। সেই সাথে তাঁর সংযোজন ‘এখানে প্রত্যেকের অধিকার রয়েছে জীবনে মর্যাদার সঙ্গে বাঁচার। আমি তোমাদের ভালোবাসি। দুগ্গা দুগ্গা’।
প্রসঙ্গত গৌরি সাওয়ান্ত (Gauri Sawant) হলেন একজন ট্রান্সজেন্ডার (Trancegender) কর্মী। যিনি ২০০০ সাল থেকে ‘সখী চর চৌঘী’ নামে একটি ট্রাস্ট প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। এটি এমন একটি এনজিও যা ট্রান্সজেন্ডারদের কাউন্সিলিং করে থাকে এবং নিরাপদ যৌনতার প্রচার করে।  প্রসঙ্গত গৌরী সাওয়ান্ত হলেন  ভারতের প্রথম ট্রান্সজেন্ডার মা। এই সিরিজের মধ্যে দিয়ে একজন মা-মেয়ের বন্ধনের দিকটাও তুলে  ধরা হবে। এই ওয়েব সিরিজে প্রতিদিন ২০ থেকে ২৫ জন ট্রান্স আর্টিস্টদের  নিয়ে শুটিং করা হবে।  এছাড়া প্রায় ৩০০ জন মতন ট্রান্সজেন্ডার শিল্পীদের নিয়ে ভিড়ের দৃশ্য শুটিং করা হবে বলে জানা গিয়েছে।

Related Articles

Back to top button