গসিপবিনোদনসিনেমা

সুপারস্টার হলেও নেই অহংকার! আমজনতার ঘরে বসেই লিট্টি চোখা খাচ্ছেন জিৎ, ভাইরাল ছবিতে প্রশংসার ঝড়

বাঙালি দর্শকদের মধ্যে বাংলা সিনেমা বা বলা ভালো টলিউড (tollywood) নিয়ে মাতামাতি বেশ রয়েছে। আর টলিউডের প্রথম সারির তারকাদের মধ্যেই পড়েন জিৎ (jeet)। একসময় ‘সাথী’ ছবিতে যার অভিনয় মন কেড়ে নিয়েছিল দর্শকদের। তিনিই আজ বাংলার সুপারস্টার হয়ে উঠেছেন। তবে সুপারস্টার হয়েও কোনো অহংকার বোধ আসেনি অভিনেতার মধ্যে।

টলিউডের যাত্রাটা শুরু হয়েছিল ২০০২ সালে। নিজের প্রথম ছবি ও টলিউডের যাত্রা শুরু করেছিলেন ‘সাথী’ ছবি দিয়ে। প্রথম ছবিই সুপারহিট, মিলেছিল দারূন সাফল্য। এর পর থেকেই আর কোনোদিন পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি অভিনেতাকে। একেরপর এক ছবির অফার পেয়েছেন আর ছবিতে অভিনয় করে দর্শকদের মন জিতেছেন। দেখতে দেখতে বাকি অভিনেতাদের পিছনে ফেলে আজ জনপ্রিয়তার শীর্যে রয়েছেন জিৎ।

জনপ্রিয়তা বাড়তে সোশ্যাল মিডিয়াতে তৈরী হয়েছে একাধিক ফ্যান পেজ। যেখানে জিতের নানা ছবি থেকে শুরু করে ভিডিও শেয়ার করা হয়। আর জিৎ প্রেমীরা সেই ছবি ও ভিডিও দেখে আপ্লুত হন ও মুহূর্তের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে পরে সেগুলি। কিছুমাস আগে এমনি এক  ফ্যানপেজে জিতের একটি ছবি শেয়ার করা হয়েছে। সাধরণত সুপারস্টারের ছবি মানেই চাকচিক্যে ভরা একখানা ছবি। তবে এই ছবিটা কিন্তু একেবারেই আলাদা।

না কোনো চাকচিক্যই নেই, বরং প্রথম দেখায় মনে হতে পারে অতিসাধারণ একটা ছবি।  কেন? কারণ একেবারে সাধারণ একটি বাড়িতে প্লাস্টিকের চেয়ারে বসেই হাইফাই খাবার ছেড়ে লিট্টি চোখা খেতে দেখা যাচ্ছে জিৎকে সেই ছবিতে। এমন ছবি কি আর রোজ চোখে পরে! ছবি শেয়ার করে ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, ‘এতো বড় সুপারস্টার যার বিন্দুমাত্র অহংকার নেই’।

প্রিয় অভিনেতার এমন অদেখা ছবি দেখতে পেয়ে দারুন খুশি নেটিজেনরা। সাথে রয়েছে একাধিক প্রশংসায় ভরা মন্তব্য। কারও মতে, শুটিংয়ের ফাঁকে তোলা ছবিটি। জিৎ দা একেবারেই মাটির মানুষ। তো কারোর মতে, বড় মনের মানুষ উনি, নাহলে এতো সাফল্য পাওয়া যায় না। সুতরাং বোঝাই যাচ্ছে জিৎ অনুরাগীদের সংখ্যা বেশ ভালোই রয়েছে নেটপাড়ায়।

Related Articles

Back to top button