গসিপবিনোদন

লোক দেখাতে কালো মেয়ে দত্তক নিয়েছেন সানি লিওনি! মেয়ের প্রতি অবহেলা করে ট্রোলড প্রাক্তন পর্নস্টার

পৃথিবীর সবচাইতে সুন্দর অনুভূতি হল মা হওয়া। প্রতিটা মহিলাই চায় মা ডাক শুনতে তবে অনেকেই নানা সমস্যার কারণে মা হতে পারেন না। আর এই সমস্যা শুধু সাধারণ মানুষেরই নয় বরং সেলিব্রিটিদের মধ্যেও দেখা যায়। বলিউডের অভিনেত্রী সানি লিওনি (Sunny Leone) বর্তমানে তিন সন্তানের মা তবে অভিনেত্রী একসময় মা হবার জন্য বারেবারে ব্যর্থ হয়েছিলেন। হতাশ হয়ে ভেঙে পড়েছিলেন ভেবেছিলেন হয়তো আর কোনোদিনই মা হতে পারবেন না তিনি।

আসলে কারোরই অজানা নয় বলিউডের ‘বেবিডল’ হয়ে ওঠার আগে সানি ছিলেন পর্ন ইন্ডাস্ট্রির প্রতিষ্ঠিত নায়িকা। তাই মা হতে না পারায় বেশ চিন্তাতেই ছিলেন অভিনেত্রী। সব দিক বিবেচনা করে ২০১৫ সালে মহারাষ্ট্রের একটি অনাথ আশ্রম থেকে মেয়ে নিশাকে দত্তক নিয়েছিলেন অভিনেত্রী। এরপর ২০১৮ সালে প্রথমবার সারোগেসির মাধ্যমে মা হন তিনি।

সানির দত্তক কন্যা নিশার গায়ের রঙ বেশ চাপা। এদিকে সানির ত্বক যেন দুধের মতো সাদা। এমন কন্যা দত্তক নেওয়ায় এর আগে অনেকেই সানির বড় মনের প্রশংসা করেছেন৷ কিন্তু সম্প্রতি সেই ধারণা গেল এক্কেবারে বদলে। অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ, নিশার মা হিসেবে তিনি নাকি খুবই খারাপ।

অভিযোগ ব্যস্ত রাস্তায় নাকি মেয়ের হাত ছেড়ে দিয়েছিলেন সানি। এই কথা শুনে অনেকেই বলছেন পুরোটাই ‘শো অফ’, প্রচারের আলোয় থাকার জন্যেই নাকি নিশাকে দত্তক নিয়েছিলেন সানি। তবে এই নিয়ে জলঘোলা শুরু হতেই মুখ খুললেন সানির স্বামী ড্যানিয়েল।

তিনি এক সাক্ষাৎকারে সাফ জানালেন, “নিশাকে আমরা কতটা ভালোবাসি, তা বাইরের লোককে প্রমাণ দেওয়ার প্রয়োজনবোধ করিনা। আমার দুই ছেলের বয়স ৩ বছর, খুব দুরন্ত। অন্যদিকে নিশার বয়স ৬ তাই ও হাঁটতে চলতে পারে। ও আমার বাড়ির রাজকন্যা। কে কী ভাবল তাতে আমার মাথাব্যথা নেই। “

Related Articles

Back to top button