বিনোদনভাইরালভিডিও

‘খালি নাটক, ফুটেজ খাওয়ার ধান্দা!’ মায়ের বিসর্জনে সুদিপার কান্না দেখে কটাক্ষ নেটিজেনদের

বাংলা বিনোদন জগতের অত্যন্ত পরিচিত নাম সুদীপা চ্যাটার্জী (Sudipa Chatterjee)। তাঁকে একডাকে চেনে গোটা বাংলা। জনপ্রিয় রান্নার অনুষ্ঠান জী বাংলার রান্না ঘরের সঞ্চালনা করেই বাংলার ঘরে ঘরে পৌঁছে গিয়েছেন তিনি। তবে নিজের করা বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে বিগত বেশ কিছুদিন ধরেই শিরোনামে রয়েছেন সুদীপা।

সম্প্রতি সুইগির ডেলিভারি বয়দের ওপর ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করেছিলেন জনপ্রিয় এই সঞ্চালিকা। সেই পোস্টে তিনি লিখেছিলেন ‘আমি শুধু জানতে চাই সুইগির একজন ডেলিভারি বয়ও ফোন না করে কেন গন্তব্যে পৌঁছাতে পারেন না? ফোন করে কেন বলবে, ‘আমি আসছি আপনি গেটটা খুলুন’ আমি কি দারোয়ান যে গেট খুলব?’

স্বাভাবিকভাবেই  সুদীপার মত একজন জনপ্রিয় সঞ্চালিকার মুখে এমন মন্তব্য শুনে সকলেরই মনে হয়েছে প্রচন্ড অহংকারী তিনি।সেই থেকে সুদিপার বিরুদ্ধে প্রচন্ড ক্ষোভে ফুঁসছেন নেটিজেনদের একাংশ। যার ফলে সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি যাই পোস্ট করছেন সেখানেই কমেন্ট সেকশনে গিয়ে ক্ষোভ উগরে দিচ্ছেন অনেকে। এমনকি পুজোর আগে শাড়ির লাইভ ভিডিও করেও নেটিজেনদের কটাক্ষের মুখে পড়েছিলেন সুদীপা।

যার ফলে অবস্থাটা এখন এমনই হয়ে দাঁড়িয়েছে যে সুদীপা যাই পোস্ট করছেন তা দেখেই রাগ চরমে উঠছে নেটিজেনদের। আমরা সকলেই জানি সদ্য শেষ হয়েছে দুর্গা পুজো, তাই এই মুহূর্তে বিষাদের সুর বাংলার ঘরে ঘরে। ব্যতিক্রম নন সঞ্চালিকা সুদীপা চ্যাটার্জীও। প্রত্যেক বছর তার বাড়িতেই দেবী দুর্গার আগমন ঘটে।  ধুমধাম করে মহা সমারোহে দেবীর আরাধনা করেন সুদীপা। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি।

সম্প্রতি বিজয়া দশমীর দিন সুদিপার দেবী বরণের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেখানে দেখা যাচ্ছে লাল পাড় সাদা শাড়ি পরে সুদীপা কখনো দেবী দুর্গাকে বরণ করছেন আবার কখনো বাড়ির সদস্যদের সাথে সিঁদুর খালার পাশাপাশি নাচে গানে মেতে উঠেছেন সুদীপা। আবার কখনও মায়ের বিদায়বেলায় কাঁদতেও দেখা গিয়েছে সুদীপাকে।

এই ভিডিও ঝড়ের বেগে ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social Media)। সেখানেই কমেন্ট সেকশনে সুদীপাকে কটাক্ষ (Troll) করেছেন  অনেকেই। কমেন্ট সেকশনে কেউ সরাসরি মন্তব্য করেছেন ‘খালি নাটক বাজি করে, ফুটেজ খাওয়ার ধান্দা!’ তো কেউ লিখেছেন ‘ন্যাকামির শেষ নেই! কেউ লিখেছেন ‘যতসব ন্যাকামি!’

Related Articles

Back to top button