টেক নিউসভাইরালভিডিওসিনেমা

সিকিউরিটি চেকিংয়ের অজুহাত,সুধা চান্দ্রনের কাঠের পা খুলে অপমান! নালিশ গেল প্রধানমন্ত্রীর কানে

দেশের জনপ্রিয় নৃত্যশিল্পী তথা অভিনেত্রী সুধা চান্দ্রন( Sudha Chandran)। তাঁর অসম্ভব মনের জন্য তাকে কুর্নিশ জানায় গোটা দুনিয়া। পা হারানোর যন্ত্রণাকে বুকে চেপেই প্রতিকূলতাকে জয় করে নিজের স্বপ্ন পূরণের সাহস দেখিয়েছেন তিনি। ষোলোতম জন্মদিনের ঠিক আগেই সুধার জীবনে নেমে এসেছিল সেই অভিশপ্ত দিন। মুহুর্তের মধ্যে এক ভয়ঙ্কর বাস দুর্ঘটনায় ছিন্নভিন্ন হয়ে যায় তাঁর স্বপ্ন।

কিন্তু সবাইকে অবাক করে দিয়ে ঘুরে দাঁড়িয়েছেন তিনি। কৃত্রিম পা নিয়েই বিশ্বের দরবারে গোটা দেশের মুখ উজ্জ্বল করেছেন এই বিশ্ববিখ্যাত শিল্পী। তাই তাঁর অদম্য ইচ্ছাশক্তি আর সাঙ্ঘাতিক মনের জোর অনেকের কাছেই আজ অনুপ্রেরণা। ১৯৮৪ সালে মুক্তি পায় সুধার জীবনের উপর তৈরি ছবি তেলুগু ছবি ‘নাচে ময়ূরী’। এই সিনেমাতে নিজের চরিত্রেই অভিনয় করে জাতীয় পুরস্কার পেয়েছিলেন সুধা।

Sudha Chandran

এহেন জনপ্রিয় শিল্পীকে এবার হেনস্থা হতে হল বিমানবন্দরে। এবিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে সম্প্রতি ইন্সটাগ্রামে একটি ভিডিও প্রকাশ করেছেন সুধা চন্দন। তাঁর অভিযোগ আপত্তি করা সত্ত্বেও বিমানবন্দরে তাঁর  কৃত্রিম পা খুলে সিকিউরিটি চেকিং করা হয়েছে। গোটা ঘটনা বিস্তারিত জানিয়ে তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে সাহায্য চেয়েছেন।

Sudha Chandran

এদিন ওই ভিডিওতে সুধা বলেছেন, ‘আমাদের প্রিয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ( Narendra Modi) কাছে একটি অনুরোধ নিয়ে এসেছি। আমি সুধা চন্দ্রন। পেশায় একজন অভিনেত্রী, নৃত্যশিল্পী। যে কৃত্রিম পা নিয়ে ইতিহাস গড়েছে। বিশ্বের দরবারে ভারতকে সম্মানিত করেছে। কিন্তু যখন আমি কর্মসূত্রে শহর থেকে বাইরে যাই। বিমানবন্দরে বার বার হেনস্তার মুখে পড়ি। আমাকে কৃত্রিম পা খুলে দেখাতে হয়। আমি যদি সিআইএসএফ অফিসারদের স্ক্যান করে দেখার কথা বলি, অফিসাররা রাজি হন না। মোদিজি আপনার কাছে একটাই অনুরোধ এমন একটা সিনিয়র সিটিজেন কার্ড তৈরি করুন। যাতে আমাদের আরও সুবিধা হয়। ‘

 

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Sudhaa Chandran (@sudhaachandran)

জনপ্রিয় শিল্পীর এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন নেটিজেনরাও। এপ্রসঙ্গে সিআইএসএফের (CISF) পক্ষ থেকে একটি টুইট করে নৃত্যশিল্পীর কাছে ক্ষমা চেয়ে টুইটে লেখা হয়েছে, ‘আমরা অভিনেত্রী সুধা চন্দ্রনের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী। আসলে নিরাপত্তার খাতিরেই কৃত্রিম পা খুলতে বলা হয়েছিল। এরপর থেকে সব সদস্যকে বলে রাখা হবে, ভবিষ্যতে যেন কোনও সমস্যা না হয়।’

Related Articles

Back to top button