খবর

রসাতলে বাংলার সংস্কৃতি! টুম্পা গানে চটুল নাচে মত্ত কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা

এতদিন পিকনিক থেকে শুরু করে পুজো প্যান্ডেল ভাসান থেকে বিয়ে বাড়ি সবেতেই দাপিয়ে বেড়িয়েছে বিখ্যাত আইটেম সং ‘টুম্পা সোনা’ (Tumpa sona)। বাংলার মানুষ মজার ছলে খুব অল্পদিনেই এই গানকে ভীষণ আপন করে নিয়েছেন তা বলাই বাহুল্য। কিন্তু এবার এই টুম্পা সোনা গানে চটুল নাচল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের (Culcutta university) পড়ুয়ারা। ক্যাম্পাসের মধ্যেই সরস্বতী পুজো (Saraswati pujo) উপলক্ষে দিগ্বিদিক জ্ঞানশূন্য হয়ে নাচে মেতে উঠলেন পড়ুয়ারা।

এই ঘটনার পরেই নিন্দার ঝড় উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়, অভিযোগের তীর তৃণমূল ছাত্র পরিষদের দিকেই। বাংলার সংস্কৃতির এহেন ভরাডুবি দেখে লজ্জায় মাথা কাটা যাওয়ার জোগাড় হয়েছেবাঙালি জাতির।

রবীন্দ্রভারতীর পর কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়, ফের অপসংস্কৃতির জেরে শিরোনামে রাজ্যের এই প্রথমসারির এই বিশ্ববিদ্যালয়। সরস্বতী পুজোতে পড়ুয়াদের ‘টুম্পা গানে’ কোমর দুলিয়ে নাচের ধরন দেখে ক্ষুব্ধ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এ ঘটনার কড়া সমালোচনা করেছেন তাঁরা। এই বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সোনালী চক্রবর্তী বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘যা হয়েছে তা ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির বিরোধী’।ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে, খুব শিগগিরই খতিয়ে দেখা হবে এই ‘মাত্রাহীন’ আনন্দের পেছনে আসল মাথা কারা! উনিশের বসন্তোৎসবের আগে বিতর্কে নাম জড়িয়েছিল রবীন্দ্র ভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে। আর এবার বসন্ত পঞ্চমীর দিনে বিতর্কের সৃষ্টি হল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে।

Related Articles

Back to top button