বিনোদনসিনেমা

‘তুমি তো আমার পাশেই শুয়ে থাকবে!’ বৌ নয় শ্রীলেখার পাশে শোবেন শ্রীজাত, ফাঁস গোপন কথা

ব্যস্ত শিডিউলের মধ্যেও বরাবরই সোশ্যাল মিডিয়ায় দারুন অ্যাক্টিভ থাকেন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র (Sreelekha Mitra)। সেখানেই প্রতিনিয়ত জীবনের ছোটো থেকে ছোটো ঘটনার আপডেট দিয়ে থাকেন অভিনেত্রী। তুলে ধরেন জীবনের নানান সমস্যার কথাও। তেমনই গতকাল গভীর রাতে মুশকিল আসানের খোঁজে ফেসবুকের পাতায় একটি পোস্ট করেছিলেন অভিনেত্রী।

সেই পোস্টে নেটিজেনদের সাহায্যের আশায় অভিনেত্রী লিখেছিলেন ‘আরলি মর্নিং ফ্লাইট, ঠিক ভোর ৩টের সময় কেউ ফোন করে জাগিয়ে দিও।’ অভিনেত্রীর এই কাতর আর্তি ফেসবুকের দেওয়ালে পোস্ট হওয়া মাত্রই উপচে পড়ে হরেক রকম মন্তব্যের বন্যা। প্রিয় অভিনেত্রীর ঘুম ভাঙানোর দায়ীত্ব পেতে একে একে হামলে পড়েন অসংখ্য অনুগামী।

তবে অসংখ্য কমেন্টের মধ্যে সকলের নজর কেড়েছে বাংলার জনপ্রিয় কবি শ্রীজাত বন্দোপাধ্যায়ের (Srijato Bandyopadhyay) কমেন্ট । কবি মানুষ বলে কথা মজা করার সুযোগ পেয়ে লোভ সামলাতে পারেননি। আর তাই শ্রীলেখার পোস্টে কমেন্ট করতে গিয়ে নিজেই পড়লেন গ্যাঁঢ়াকলে। আর শ্রীজাত আর শ্রীলেখার এই কথোপকথন যে নেটিজেনরা চুটিয়ে উপভোগ করেছেন তা শ্রীজাতর কমেন্টের হাসির রিয়্যাক্ট দেখেই বোঝা যাচ্ছে।

আসলে এদিন শ্রীলেখার ওই পোস্টে রসিকতা করে শ্রীজাত লিখেছিলেন ‘তুমি আমায় আড়াইটে নাগাদ জাগিয়ে দিও, আমি তিনটে নাগাদ তোমাকে কল করব কেমন’? এরপরেই আসে আসল টুইস্ট। এমনিতে বরাবরই সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনদের সাথে খোলামেলা আড্ডায় মেতে থাকেন নায়িকা। তবে শ্রীলেখা মানেই বিতর্কের অন্ত নেই!

এদিনও বন্ধুর মস্করার উত্তরে সবাইকে অবাক করে দিয়ে উত্তরে শ্রীলেখা পাল্টা লিখেছেন ‘তুমি তো আমার পাশেই শুয়ে থাকবে! ওহ বউ জানে না ধরা পড়ে গেলে।’ রসিকতা করে এমন ফ্যাসাদে পড়বেন সেকথা বোধহয় শ্রীজাত নিজেও বুঝতে পারেননি।পাল্টা উত্তরে অবশ্য তিনিও লিখেছেন, ‘বোঝো! কল করতে গেলে পাশে শুতে হবে কেন? সে তো আর কল থাকবে না তাহলে! গ্যাঁড়াকল হয়ে যাবে’। নেটিজেনদের অনেকে এই মজার কথোপকথনের নাম দিয়েছেন ‘কল নিয়ে কেলো।’

Related Articles

Back to top button