একই ঘরে তালাবন্দি হয়েও বলিউডের শ্রীদেবীর সাথে কোনো কথাই হয়নি অভিনেত্রী জয়াপ্রদার!


নব্বই এর দশকের বলিউডের সেরা দুই অভিনেত্রী হলেন শ্রীদেবী (Sridevi) ও জয়াপ্রদা (Jayaprada)। এই দুই অভিনেত্রী একত্রে অনেক ছবি করেছেন সে সময়। অভিনেত্রীদের করা ছবির মধ্যে ‘মে তারা দুশমন’, ‘মাওয়ালী’, ‘ফারিশতে’ এর মত জনপ্রিয় ছবি রয়েছে। তবে ছবির পর্দায় একত্রে কাজ করলেও আসল জীবনে দুজনের মধ্যে কথাবার্তাও হাত না। দুজনে দুজনকে সহ্যই করতে পারতেন না।

ছবির শুটিং এর জন্য একসাথেই আসতেন অভিনেত্রীরা। কিন্তু বলতেন না একে ওপরের সাথে কোনো কথাই। ‘মাকসাদ’ ছবির শুটিং এর সময়ও একই অবস্থা হয়েছিল। সময়মত শুটিং এ আসা থেকে অভিনয় সবই হাত তবে দুজনের মধ্যে না কোনো কথা না কোনো সম্পর্ক।

দুই অভিনেত্রীর এই ভাবেই ছিলেন দীর্ঘদিন। স্বাভাবিকভাবেই অভিনেত্রীদের মধ্যেকার এই মনোমালিন্য নজরে আসে সকলের। অভিনেতা রাজেশ খান্না ও জিতেন্দ্রর দুই অভিনেত্রীর পরস্পরের প্রতি এই ব্যবহার মোটেও ভালো লাগেনি। একদিন রেগে গিয়ে দুজন নিলে দুই অভিনেত্রীকে শুটিং এর মেকআপ রুমের মধ্যে তালা বন্ধ করে দেন। রাজেশ খান্না ও জিতেন্দ্র ভেবেছিলেন একসাথে বন্ধি হয়ে থাকলে হয়তো কিচুক্ষন চুপ থাকলেও তারপর দুজনেই একেঅপরের সাথে কথা বলতে শুরু করে দেবে।

Sridevi Jayaprada

কিন্তু সে গুড়ে বালি! ঘন্টা খানেক পর যখন দরজা খোলা হল, তখন হতবাক হয়ে গেলেন রাজেশ খান্না ও জিতেন্দ্র দুজনেই। বন্ধ ঘরে ঘন্টার পর ঘন্টা থাকার পরেও কথা বলা তো দূরস্থ, একই জায়গায় ঠায় বসে আছেন দুজনেই। ঠিক যেমনটি দেখেছিলেন দরজা বন্ধ করার আগে তেমনি আছেন তারা। অবশ্য এই ঘটনা নব্বইয়ের দশকের হলেও আজও অভিনয় জগতে এধরণের উদাহরণ রয়েছে। উদাহরণ হিসাবে বিপাশা বসু ও কারিনা কাপুরকেই ধরে নেওয়া যায়।