বিনোদনসিরিয়াল

অবশেষে সুসম্পন্ন রোহিত শ্রীময়ীর বিয়ে! ফুলশয্যার রাতে কাছাকাছি এলেন নবদম্পতি, খুশি অনুরাগীরা

দীর্ঘ প্রতিক্ষার অবসান। ধারাবাহিকের শুরু থেকেই শ্রীময়ীর জীবন কণ্টকাকীর্ণ। সব বাধা অতিক্রম করে অবশেষে যেন শ্রীময়ীর জীবনে একটু আলোর সন্ধান খুঁজে দিল রোহিত সেন (Rohit Sen)। সময় ফুরিয়ে আসছে রোহিতের, আর এই কঠিন সময়ে জীবনের শেষ কয়েকটা দিন পুরোনো প্রেমিকের হাত শক্ত করে ধরলেন শ্রীময়ী। শ্রীময়ীর জন্য অনন্তকালের অপেক্ষা যেন এবার ঘুচলো রোহিতের, কিন্তু তবু দুজনের বুকেই বিষাদের সুর। সময় যে ক্রমেই ফুরিয়ে আসছে তার।

রোহিতের শরীরে বাসা বেধেছে মারণ ব্যধি ক্যানসার। আর এই কঠিন সময়েই সারা সমাজ, নিজের ছেলে মেয়ে সকলের ‘না’কে উপেক্ষা করে রোহিতকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন শ্রীময়ী। তবে বিয়েটা শেষমেশ হবে কিনা সেই নিয়ে যথেষ্ট প্রশ্ন উঠছিল। কিন্তু যা বলেছেন তা কাজে করে দেখালেন শ্রীময়ী রোহিত জুটি। এই মিলন দেখে বেজায় খুশি দর্শকেরাও।

শনিবার শ্রীময়ীর নতুন প্রোমো প্রকাশ্যে এসেছে। যেখানে রাঙা টুকটুকো লাল শাড়িতে ফের শ্রীময়ীর মাথায় জ্বলজ্বল করছে সিঁদূর। মাথায় জুঁইয়ের মালা। খাট সাজানো রঙবেরঙের ফুলে। ঘরের ভিতরে বর বেশে সাদা পাজামা পাঞ্জাবিতে শ্রীময়ীর অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে রোহিত সেন।

শ্রীময়ীকে দেখে রোহিত বলে উঠল- ‘অবশেষে আমার অনন্ত অপেক্ষা আজ সার্থক হল’। নামের পিছন থেকে ‘দাদা’ শব্দটা অচিরেই মুছে ফেলে রোহিতকে ডেকে শ্রীময়ী পালটা বলল, ‘আমি তোমাকে যেতে দেব না রোহিত… শেষ পর্যন্ত যখন একটা নতুন জীবন পেলাম, তুমি এই জীবনটা কেড়ে নিও না’। এরপর রোহিতের বুকে মুখ গুজে দিল শ্রীময়ী, নেপথ্যে বাজছে ‘বিরহ মধুর হল আজি মধুরাতে’।

এই মধুর দৃশ্য দেখে চোখ জুড়িয়েছে শ্রীময়ীর অনুরাগীদের। কম অন্যায় তো হয়নি তার সাথে। অবশেষে যেন প্রাপ্য সম্মানটুকু ফিরে পেল শ্রীময়ী। হ্যাঁ এই জন্য নিজের ছেলে ডিঙ্কাও মুখ ফিরিয়েছে তার থেকে। তবু শেষতক লড়াই ছাড়তে নারাজ শ্রীময়ী। এখন দেখার রোহিতের সঙ্গে কি আদৌও সাজিয়ে সংসার করতে পারবেন শ্রীময়ী, নাকি বেহুলার মতো স্বামীকে বাঁচাতে আরও বড় কোনো অগ্নিপরীক্ষা অপেক্ষা করছে তার জন্য?

Related Articles

Back to top button