ছবিবিনোদনভিডিও

বাঙালি খাবার যেন অমৃত! বিদেশ ঘুরে ডাল -ভাত আলুসেদ্ধ খেয়েই শেষে প্রাণ জুড়োলো শ্রীলেখার

টলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রীদের মধ্যে অন্যতম হলেন শ্রীলেখা মিত্র (Sreelekha Mitra)। বয়সের কোনোদিনই ধারধারেন না শ্রীলেখা। বয়স ৪৫ পেরোলেও তার ব্যক্তিত্ব, অভিনয় থেকে ঠোঁটকাটা স্বভাব সবই থাকে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে। সেই সাথে শ্রীলেখার পশু প্রেমের কথাও অজানা নয় কারও কাছে। অভিনেত্রীর কাছে ওরাই ওঠে স্ট্রেস বাস্টার।

ব্যস্ততা থেকে সময় বার করে সদ্য ইউরোপ সফরে গিয়েছিলেন অভিনেত্রী। সেখানে গিয়ে বিদেশের আনাচে কানাচে ঘুরে বেরালেও তাঁর বিদেশ যাওয়ার আসল কারণটি ছিল অন্য। তিনি ডাক পেয়েছিলেন বিশ্ববরেণ্য ভেনিস ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে। সেখানে আন্তর্জাতিক ফিল্ম ফেস্টিভ‍্যালে দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন তিনি।

তবে বিদেশে থাকাকালীন চুটিয়ে ছুটি উপভোগ করলেও একটা জিনিস খুব মিস করছিলেন অভিনেত্রী। আর তা হল বাড়ির তৈরি একেবারে সাদামাটা বাঙালি খাবার। আর তাই বাড়ি ফিরে আর দেরি করেননি এক ফোঁটা। প্রিয় পোষ্যকে পাশে নিয়েই উপভোগ করছেন চিরন্তন বাঙালি খাবার ডাল, ভাত, আলু সেদ্ধ। খাবার খুব সাধারণ হলেও তার স্বাদ যে একেবারে জিভে লেগে থাকার মতো তার স্পষ্ট ছাপ অভিনেত্রীর চোখে মুখে।

দেশে ফিরে প্রথমেই সোশ্যাল মিডিয়ায় বাঙালি খাবারের স্বাদ নেওয়ার ছবি এবং ভিডিও শেয়ার করেছেন অভিনেত্রী। সেখানে দেখা যাচ্ছে, বাঙালি খাবার নিজে যেমন প্রাণভরে খাচ্ছেন তেমনই খাওয়াচ্ছেন প্রিয় পোষ্য কে। আর সেই রান্না অবশ্য শ্রীলেখা নিজে করেননি। তা করে পাঠিয়েছেন শ্রীলেখার বোন কাম বন্ধু শুক্লা বি হাজরা। তিনিই কিছুদিন আগে শ্রীলেখার জন্মদিনে তাঁর জন্য কিউই ফলের কেক তৈরি করেছিলেন।

সেইসাথে শ্রীলেখা লিখেছেন, ‘সেরা আরামদায়ক খাবার। এতদিন ক্রেপেস, পিৎজ়া, রিসোটো খাওয়ার পর ভাত-ডাল-আলু সিদ্ধ পাচ্ছি। ভালবেসে রেঁধেছে আমার বান্ধবী শুক্লা বি হাজরা। এই স্বাদের ভাগ হয় না।’ উল্লেখ্য বিদেশের মাটিতে বসে যখন বাঙালি মিস করছিলেন অভিনেত্রী, তখন তাঁর জন্মদিনে জুরিখে এক বাঙালি পরিবার সুন্দর করে সাজিয়ে গুছিয়ে তাঁকে জন্মদিনের ভোজ খাইয়েছিলেন।

Related Articles

Back to top button