বিনোদন

ইতালিতে গিয়ে পয়সা উড়িয়ে ভিখারি দশা! নিজেকে দেউলিয়া ঘোষণা করলেন শ্রীলেখা মিত্র

টলিউডের সেরা অভিনেত্রীদের তালিকায় অন্যতম অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র (sreelekha mitra)। বয়সের কোনোদিনই ধারধারেন না শ্রীলেখা। বয়স ৪৫ পেরোলেও তার ব্যক্তিত্ব, অভিনয় থেকে ঠোঁটকাটা স্বভাব সবই চর্চার বিষয়। স্পষ্ট কথা স্পষ্ট ভাবে মুখের উপর বলার জন্য সমালোচিত হওয়া থেকে নিজের বোল্ডনেসে ঘুম ওড়ানো সবই অভিনেত্রীর আয়ত্তে। তবে তার এই সাহসিকতাকেই অনেকে যেন ভালো চোখে নিতে পারেননা।

তার যেকোনো পোস্ট যেমন এক শ্রেণীর মানুষের কাছে বিপুল পছন্দের, তেমনই তার ছবিতে কটুক্তিও যেন মাস্ট। জনপ্রিয়তা এবং সমালোচনা যেন হাত ধরাধরি করে চলে অভিনেত্রীদের জীবনে, আর এই তালিকায় একদম উপরের নাম শ্রীলেখা মিত্র। তবে এসবে কোনোকালেই বিশেষ কান দেন না শ্রীলেখা। বরং হেটার্সদের কাঁচকলা দেখিয়ে নিজের কাজ আরও পারদর্শীতার সঙ্গে প্রতিনিয়ত করে চলেছেন অভিনেত্রী।

আমরা সকলেই জানি সম্প্রতি ইতালির ভেনিস শহরে রয়েছেন অভিনেত্রী। সেখান থেকে প্রতিনিয়তই কোনো না কোনো ছবি, ভিডিও শেয়ার করে চলেছেন অভিনেত্রী। কিন্তু বিদেশে গিয়ে যে একটু সতর্ক না থাকলেই বিপাকে পড়তে হয়, তা বেশ টের পেলেন শ্রীলেখা৷

গত কয়েকদিনে হুহু করে টাকা বেরিয়ে গিয়েছে শ্রীলেখার, যার জেরে নিজেকে দেউলিয়া বলে ঘোষণা করেছেন অভিনেত্রী৷ কখনও রেস্তোরাঁয় গিয়ে চক্ষু চড়কগাছ, তো আবার কখনও বোট ট্যাক্সি চড়তে গিয়ে মাথায় হাত শ্রীলেখার৷ সম্প্রতি নীল সমুদ্রের মাঝে বোট ট্যাক্সি চড়ার ছবি শেয়ার করে অভিনেত্রী লিখেছেন, “৬০ ইউরো দিয়ে প্রাইভেট বোট ট্যাক্সি ভাড়া করে লিডো থেকে ভেনিসে যাচ্ছি। দেউলিয়া হয়ে গেলাম।”

পরিচালক আদিত্য বিক্রম সেনগুপ্তর ছবি ‘ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন কলকাতা’। এই ছবি ডাক পেয়েছে ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবে, আর তাইই বিদেশ উড়ে গিয়েছেন অভিনেত্রী। দিন কয়েক আগেই, ভেনিসের একটি রেস্তোরাঁয় ডিনারে গিয়েছিলেন অভিনেত্রী, সেখানেই তার চোখ পড়ে এক সুদর্শন পুরুষের সঙ্গে।

ভাবলেন তার সাথে কথা এগোনো যাক, কথা বলতে বলতেই ওই ব্যক্তির কথায় অর্ডার করলেন ওই দেশের একটা মাছের রেসিপি। জমিয়ে খাওয়াদাওয়াও করলেন, কিন্তু বিল মেটাতে গিয়ে শ্রীলেখার মাথায় হাত। ইউরোতে ৬৭.২০। ভারতীয় মুদ্রায় যার দাম ৫ হাজারের থেকে বেশি! শ্রীলেখা তাঁর ফেসবুকে শেয়ার করলেন সেই খাবারের ও বিলের ছবি। সঙ্গে পোস্ট করলেন সেই সুপুরুষের সঙ্গে তোলা সেলফিও। এই পোস্টে শ্রীলেখা লিখলেন, ”এই সেই কালনাগিনী মাছ। সুন্দর ছেলে দেখে দাম জিজ্ঞেস না করার ফলে এই যে বিল।”

Related Articles

Back to top button