বিনোদন

পরীক্ষায় ৯৫ শতাংশ পেয়েও খুশি নয় মেয়ে, মাইয়‍্যার কান্ডকে ঢং বললেন শ্রীলেখা!

টলিউডের অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র (Sreelekha Mitra), তবে অভিনেত্রী হওয়ার পাশাপাশি তিনিও একজন মা। এবছরেই ICSE পরীক্ষা দিয়েছিল মেয়ে মাইয়‍্যা সান্যাল (Maiya Sanyal)। ইতিমধ্যেই পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়েছে। পরীক্ষায় ৯৫ শতংশ নাম্বার পেয়েছে সে। কিন্তু ৯৫ পেয়েও মন খারাপ, মা শ্রীলেখা খুশির খবর সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতেই খেলেন বকা!

এদিন শ্রীলেখা মিত্র প্রথমে খুশি হয়েই পোস্ট করেছিলেন মেয়ে ICSE পরীক্ষায় ৯৫ শতাংশ নাম্বার নিয়ে পাশ করেছে। জীবনের প্রথম বড় পরীক্ষায় এমন ভালো নাম্বার নিয়ে পাশ করা সত্যিই দারুন খুশির খবর। আর তাছাড়া সেলেব্রিটি হলেও সন্তান আর মায়ের সম্পর্ক সবার ক্ষেত্রেই এক। তাই মেয়ের পরীক্ষার ফল কেমন হবে সেই নিয়ে চিন্তা অভিনেত্রীরও হয়। আর ফলাফল দেখে দারুন খুশি হয়েছিলেন শ্রীলেখা।

Sreelekha Mitra

পরীক্ষার রেজাল্ট বেরোনোর খবর ঘোষণা হওয়ার পর অভিনেত্রী নিয়ে দুশ্চিন্তার কথা শেয়ার করেছিলেন সোশ্যাল মিডিয়াতে। বলেছিলেন, মেয়ের রেজাল্টের কথা ভেবেই বুকের ভেতরে ধক ধক হচ্ছে। তবে সেই ভয় খুশিতে পরিবর্তিত হয়ে গিয়েছে মেয়ের রেজাল্টে ৯৫ শতাংশ নাম্বার দেখে। গর্বের সাথে খুশির খবরটা জানিয়েও ছিলেন সকলকে।

কিন্তু এর কিছুক্ষণ পরেই আবার সেই পোস্ট উধাও হয়ে যায়। বদলে অবশ্য আরেকটি  নতুন পোস্ট করেন অভিনেত্রী। তাতে লেখেন, আগের পোস্টটা আর্কাইভ করলাম মেয়ের হুকুমে, আরও বেশি আশা করেছিল। কোনো কিছুতেই এরা খুশি নয়। আমি হলে তো ধেই ধেই করে নাচটাও এত্ত নাম্বার পেয়ে’।

শ্রীলেখার এই পোস্টও বেশ ভাইরাল হয়ে পরে। নেটিজেনদের একজন মন্তব্য করেন, ৯৫ শতাংশ পেয়েও আরো আশা ছিল! তাকে উত্তর দিয়ে অভিনেত্রী লেখেন, হ্যাঁ ঢং না? অবশ্য শুধু এই নয়, এক শিক্ষিকা বলেন এই নাম্বার ভবিষ্যতে সেভাবে কাজে লাগবে না। যেটা অভিনেত্রী সমর্থন করেছেন ঠিকই, তবে সাথে জানিয়েছেন, মেয়ে অনেক খেটেছিল।

প্রসঙ্গত, সোশ্যাল মিডিয়াতে বেশ সক্রিয় শ্রীলেখা মিত্র। প্রতিনিয়ত মনের কথা থেকে ছবি ও ভিডিও শেয়ার করে নেন অনুগামীদের সাথে। মেয়ের সাথেও মাঝে মধ্যে ছবি শেয়ার করে নেন তিনি। মেয়ের বয়স যখন মাত্র ৮ বছর তখনই বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে যায় অভিনেত্রীর। সেই থেকে মেয়েকে একাই মানুষ করছেন তিনি।

Related Articles

Back to top button