খবরগসিপবিনোদনসিনেমা

এত সহজে মুক্তি নেই! রোশনের থেকে শুধুই ডিভোর্স নয়, খোরপোশের টাকাও চাই শ্রাবন্তীর

টলিউডের অভিনেত্রী শ্রাবন্তী (Srabanti) সর্বদাই টলিপাড়ার চর্চায় মধ্যমণি। তাছাড়া তৃতীয়বার সাত পাকে ঘুরে ও বিবাহ জীবনে সুখের মুখ দেখলেন না অভিনেত্রী। রোশন সিং (Roshan Singh) এর সাথে বিয়েটাও ভাঙল বলে। কোর্টে বিবাহবিচ্ছেদ মামলা চলছেই। তবে কোর্টে রোশন হাজির হলেও শ্রাবন্তী গরহাজির, তাই মামলার শুনানি এখন ‘তারিখ পে তারিখ’ পদ্ধতিতেই এগোচ্ছে।

তবে শ্রাবন্তী সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে যেতে চাইলেও রোশন কিন্তু চেয়েছিলেন আবারো সম্পর্কে ফিরতে। যদিও সেই সম্ভাবনা আর প্রায় নেই বললেই চলে। কারণ শ্রাবন্তী মোটেই রাজি নন আবারো রোশনের সাথে দাম্পত্যের সম্পর্কে জড়াতে। পুরোনো সম্পর্ক তথা দাম্পত্য কলহ ভুলে নতুন জীবন চাইছেন অভিনেত্রী। এছাড়াও ইতিমধ্যেই নতুন প্রেমের গুঞ্জনে ভরে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া।

বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা চলাকালীন শুনানির ডেট পড়েছিল জুলাই মাসে। কিন্তু সেই শুনানিতে হাজির ছিলেন না শ্রাবন্তী। রোশন দাবি জানিয়েছিল শ্রাবন্তীকে নিয়ে নতুন করে সংসার পাতার কিন্তু সেই দাবি যে মানতে নারাজ অভিনেত্রী সেটা তাঁর হাজির না হওয়া থেকেই স্পষ্ট। পরবর্তী শুনানির তারিখ হয়েছিল ১৬ই সেপ্টেম্বর কিন্তু দিনেও শ্রাবন্তীর দেখা মিলল না আদালতে। আবারো নতুন তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে, ১০ই ডিসেম্বর হবে পরবর্তী শুনানি।

শ্রাবন্তী চ্যাটার্জী Srabanti Chatterjee

শ্রাবন্তীর উকিলের থেকে যেমনটা জানা যাচ্ছে, রোশনের থেকে বিবাহবিচ্ছেদই চাইছেন অভিনেত্রী। এছাড়াও আর বেশি কিছু না বললেও আরো একটি তথ্য জানিয়েছেন উকিলবাবু। শুধুই ডিভোর্স না, সাথে খোরপোশের টাকাও দাবি করেছেন শ্রাবন্তী। (বিচ্ছেদের সময় এককালীন কিছু টাকা দেওয়া বা মাসিক ভিত্তিতে টাকা দেওয়াকেই খোরপোশ বলা হয়।) এটা রীতিমত এক নতুন তথ্য শ্রাবন্তী রোশন বিবাহবিচ্ছেদ মামলায়।

প্রসঙ্গত, গতবছর থেকেই দুজনের দাম্পত্য জীবনের কালো মেঘের ছায়া স্পষ্ট হয়েছিল। এরপর থেকে ধীরে ধীরে আরোও স্পষ্ট হয়েছে সেটাই। আলাদা থাকা থেকে সোশ্যাল মিডিয়াতে ছবির মাধ্যমে একেঅপরকে কটাক্ষ চলছেই। তবে তৃতীয় বিবাহ বিচ্ছেদের আগেই শ্রাবন্তীর চতুর্থ প্রেমের গুঞ্জন রটে গিয়েছে টলিপাড়ায়। আবাসনেরই বাসিন্দা অভিরূপ নাগের সাথেই নাকি প্রেম চলছে শ্রাবন্তীর। তবে একথা স্বীকার করতে নারাজ অভিনেত্রী, তাঁর মতে তাঁরা দুজনেই ভালো বন্ধু মাত্র।

Related Articles

Back to top button