রেসিপি

বড়দিনে জব্বর খাবার, রইল বাড়িতেই টেস্টি সয়াবিনের মালাইকারি তৈরির রেসিপি

বাঙালি মানেই ভোজন রসিক একথা আলাদা করে আর বলতে লাগে না। তাছাড়া খাবারের মেনুতেও কিন্তু ভ্যারাইটির কোনো অভাব নেই বাঙালিদের কাছে। নিরামিষ হোক বা আমিষ এক একটা রান্না রীতিমত আঙ্গুল চেটে খেতে হয়। তবে বর্তমানে সময় স্বাস্থ্যকর খাবার (Healthy Food) খেতে হবে যাতে শরীরে প্রোটিন (Protein) ভিটামিনের (Vitamin) মাত্রা বাড়ে ও রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে ওঠে। সাধারণত প্রোটিন বলতে অনেকেই মাছ, মাংস, ডিম এইগুলোই বোঝেন। তবে এগুলি ছাড়াও প্রোটিন পাওয়া সম্ভব।

বিভিন্ন ডালের মধ্যে ভালো পরিমানে প্রোটিন থাকে। তাছাড়া সয়াবিন (Soyabean) নামটা সকলের কাছেই বেশ পরিচিত। সয়াবিন যেমন দামে কম তেমনি এতে প্রোটিনের মাত্রাও বেশি। সত্যি বলতে গেলে সয়াবিন যদি ভালো মত রান্না করা যায়  তাহলে মাংসের থেকে কোনো অংশে কম যায় না। তাই আজ আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি সয়াবিনের মালাইকারি (Soyabean Malaikari) এর ঘরোয়া রেসিপি। যা খেয়ে রীতিমত মাংসের স্বাদ পাবেন। চলুন তাহলে আর দেরি না করে দেখে নেওয়া যাক।

সয়াবিনের মালাইকারি তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণঃ 

  • সয়াবিন, দুধ
  • পেঁয়াজ বাটা, আদা বাটা, রসুন বাটা, টমেটো পেস্ট
  • হলুদ গুঁড়ো, শুকনো লঙ্কার গুঁড়ো, কাশ্মীরি লঙ্কার গুঁড়ো
  • তেজপাতা, ঘি, গোটা গরম মশলা
  • ধনেপাতা কুচি
  • পরিমাণ মত নুন, তেল ও স্বাদের জন্য সামান্য চিনি

সয়াবিনের মালাইকারি তৈরির পদ্ধতিঃ 

  • সবার আগে সয়াবিন গরম জলে ফুটিয়ে নিয়ে আলাদা করে রাখতে হবে।
  • এবার গ্যাসে কড়া বসিয়ে সামান্য ঘি ও তেল দিয়ে তাতে তেজপাতা ও গোটা গরম মশলা দিয়ে ভাজতে থাকতে হবে।
  • এরপর প্রথমে পেঁয়াজ বাটা দিয়ে দিতে হবে কড়ায়। পেঁয়াজ বাটার পর প্রথমে টমেটো পেস্ট ও পরে আদা ও রসুন বাটা দিয়ে কষতে থাকুন।

  • কষা হয়ে গেলে কড়ায় সয়াবিনগুলো দিয়ে দিন আর সাথে হলুদ গুঁড়ো, লংকার গুঁড়ো আর পরিমাণ মত নুন দিয়ে কষাতে থাকতে হবে।
  • কষানো হয়ে গেলে সামান্য চিনি ছড়িয়ে দুধ দিয়ে দিন আর হালকা আঁচে ফুটতে দিন।

  • ১০-১৫ মিনিটের মধ্যে সামান্য গাঢ় হল মত হয়ে গেলেই তৈরী সয়াবিন মালাইকারি, এবার নামানোর আগে ওপরথেকে ধনেপাতা কুচি ছড়িয়ে দিন।

Related Articles

Back to top button