রেসিপি

ছোট থেকে বড় সবাই খাবে চেটেপুটে, রইল বাড়িতে দুর্দান্ত স্বাদের সয়াবিন কষা তৈরির রেসিপি

বাঙালি মানেই ভোজন রসিক একথা আলাদা করে আর বলতে লাগে না। তাছাড়া খাবারের মেনুতেও কিন্তু ভ্যারাইটির কোনো অভাব নেই বাঙালিদের কাছে। নিরামিষ হোক বা আমিষ এক একটা রান্না রীতিমত আঙ্গুল চেটে খেতে হয়। বর্তমানে করোনা পরিস্থিতিতে সকলেই বলছেন স্বাস্থ্যকর খাবার (Healthy Food) খেতে যাতে শরীরে প্রোটিন (Protein) ভিটামিনের (Vitamin) মাত্রা বাড়ে ও রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে ওঠে। সাধারণত প্রোটিন বলতে অনেকেই মাছ, মাংস, ডিম এইগুলোই বোঝেন। তবে এগুলি ছাড়াও প্রোটিন পাওয়া সম্ভব।

বিভিন্ন ডালের মধ্যে ভালো পরিমানে প্রোটিন থাকে। তাছাড়া সয়াবিন (Soyabean) নামটা সকলের কাছেই বেশ পরিচিত। সয়াবিন যেমন দামে কম তেমনি এতে প্রোটিনের মাত্রাও বেশি। সত্যি বলতে গেলে সয়াবিন যদি ভালো মত রান্না করা যায়  তাহলে মাংসের থেকে কোনো অংশে কম যায় না। তাই আজ আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি সয়াবিন কষা (Soyabean Kosha) এর ঘরোয়া রেসিপি। যা খেয়ে রীতিমত মাংসের স্বাদ পাবেন। চলুন তাহলে আর দেরি না করে দেখে নেওয়া যাক।

সয়াবিন কষা রেসিপি Soyabean Kosha Recipe

সয়াবিন কষা তৈরির উপকরণঃ 

  • সয়াবিন
  • আলু কুচি কুচি করে কাটা / অর্ধেক করে কাটা
  • টমেটো
  • গোলমরিচ, তেজপাতা, গোটা জীরে
  • পেঁয়াজ কুচি, আদা বাটা, রসুন বাটা
  • হলুদ গুঁড়ো, লঙ্কা গুঁড়ো, জীরে গুঁড়ো, গোলমরিচ গুঁড়ো,
  • গরম মশলা, স্বাদ মত নুন ও অল্প চিনি (স্বাদের জন্য)

সয়াবিন কষা তৈরির পদ্ধতিঃ 

  • প্রথমেই সয়াবিন গুলো ভালো করে ধুয়ে জলে ১০-১৫ ভিজিয়ে রাখতে হবে। এরপর সেগুলো থেকে জল বের করে নিতে হবে।
  • কড়ায় তেল গরম করে সয়াবিনের মধ্যে নুন হলুদ দিয়ে ভালো করে ভেজে সয়াবিন গুলি তুলে নিতে হবে।
  • এরপর আলু কাটা গুলোকেও ভেজে নিতে হবে।
  • এরপর কড়ায় আবার তেল দিয়ে তাতে জীরে, গোলমরিচ, ফোড়ন তেজপাতা দিয়ে মশলা তৈরী করতে হবে।
  • এবার কড়ায় পেঁয়াজ দিয়ে হালকা ব্রাউন করে ভেজে নিতে হবে। পেঁয়াজ ভাজা হলেই তাতে টমেটো কুচি দিয়ে নাড়তে হবে।
  • টমেটো থেকে জল বেরিয়ে গেলে তাতে আদা-রসুন বাটা, পরিমাণ মত নুন, হলুদ, ধনে, জিরা ও মরিচ গুঁড়ো দিয়ে কষতে হবে।
  • ভালো করে কষা হয়ে গেলে তেল বেরিয়ে আসবে। তখনই সয়াবিন ভাজা আর আলু ভাজা গুলো কড়ায় দিয়ে ভালো করে নেড়ে দিতে হবে।

সয়াবিন কষা রেসিপি Soyabean Kosha Recipe

  • ভালো করে নাড়িয়ে দেবার পর পরিমাণ মত জল দিয়ে ঢাকা দিয়ে দিতে হবে। ১০ মিনিট অপেক্ষা করলেই ফুটতে শুরু করবে রান্নাটি তখন স্বাদ বাড়ানোর জন্য অল্প চিনি আর গরম মশলা দিয়ে গ্যাস বন্ধ করে ঢাকা দিয়ে দিন।
  • ব্যাস আপনার সয়াবিন কষা একেবারে রেডি। এবার শুধু পাতে পরে পেটে যাবার অপেক্ষা।

Related Articles

Back to top button