বিনোদনভিডিও

দাদাগিরির মঞ্চে নিঃস্বার্থ বন্ধুত্ব! সানাও এমন ভালো মানুষ হোক, কিশোরির গল্প শুনে আপ্লুত সৌরভ

বাঙালির কাছে গর্বের আর এক নাম সৌরভ গাঙ্গুলী (Sourav Ganguly)। চরম হতাশা থেকে স্টেপ আউট করে ২২ গজের ময়দান হোক কিংবা বাস্তব জীবনে কীভাবে ছক্কা হাঁকিয়ে নিজের মাথা উঁচু রাখতে হয় তার জলজ্যান্ত উদাহরণ হলেন সকলের প্রিয় দাদা। তিনি ছিলেন বলেই বাঙালি ছাপোষা, ঘরের ছেলে মেয়েরাও আজ স্বপ্ন দেখার সাহস রাখে।

মহারাজের উপস্থিতিতেই মনের জোর বেড়ে যায় হাজার গুণ। করোনা সংক্রমণের মধ্যেই কিছুদিন আগেই সমস্ত প্রটোকল মেনে শুরু হয়েছে দাদাগিরি সিজন ৯ (Dadagiri)। মহামারীকালে অসংখ্য মানুষ নিস্বার্থভাবে সাধারণ মানুষের দিকে বাড়িয়ে দিয়েছেন সাহায্যের হাত। তাই সেই বিষয়টিকে মাথায় রেখেই চলতি সিজনে দাদাগিরির থিম হল ‘দাদাগিরি সিজন ৯-হাত বাড়ালেই বন্ধু হয়। ‘


প্রতি সপ্তাহের শেষে দাদাগিরির নিত্যনতুন এপিসোড নিয়ে হাজির হয়ে থাকেন সৌরভ গাঙ্গুলী। আজ সপ্তাহান্তে এমনই এক নিঃস্বার্থ বন্ধুত্বের গল্প শোনাতে দাদাগিরির মঞ্চে আসছেন দুই কিশোরী। এদিন চ্যানেল কর্তৃপক্ষের তরফে সোশ্যাল মিডিয়ায় এএকটি ছোটো ভিডিও ক্লিপিং শেয়ার করা হয়েছে।

সেখানে দেখা যাচ্ছে এদিনের এপিসোডে দাদাগিরির মঞ্চে উপস্থিত হতে চলেছেন সুপ্রিয়া মুন্ডা নামে এক অ্যাথলিট এবং সর্জনা বিশ্বাস নামে এক কিশোরী। নানা কথা প্রসঙ্গে এদিন ওই কিশোরী জানান হারিয়ে যেতে বসা এক অ্যাথলিটের পাশে দাঁড়ানোর গল্প। সর্জনা জানান তার পাশে দাড়িয়ে থাকা সুপ্রিয়া একজন আদিবাসী মেয়ে। তাকে কীভাবে তার স্বপ্ন পূরণে সাহায্য করেছে সেই গল্প শোনায় সর্জনা।

এদিন ওই কিশোরী জানান সুপ্রিয়ার স্বপ্ন সফল করতে তাকে সুন্দরবন থেকে উদ্ধার করে নিয়ে আসেন। এবং এখন সে স্টেট লেভেলের চ্যাম্পিয়ন। একথা শুনে সৌরভ গাঙ্গুলী বলেন দাদাগিরি সিজন ৯ হাত বাড়ালেই বন্ধু হয় তার অন্যতম উদাহরণ সর্জনা। এরপরেই সর্জনা জানতে চান মেয়ে সানাকে বাবা হিসাবে সৌরভ কি পরামর্শ দেন। উত্তরে সৌরভ বলেন ‘আমি চাই সব মিলিয়ে ভালো মানুষ হোক, যেটা আমি তোমার মধ্যে দেখতে পাচ্ছি।’

Related Articles

Back to top button