দীর্ঘদিনের প্রেম থেকে বিয়ে, বসন্তের ভরা মরসুমে সৌরভ-ডোনার প্রেম কাহিনী হার মানাবে রূপকথার গল্পকেও


সম্প্রতি বড়সড় শারীরিক সমস্যা থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন মহারাজ। সম্প্রতি হার্টে তিনটি স্টেন্ট বসেছে জাতীয় দলের প্রাক্তন অধিনায়কের। এদিকে চলতি মাসেই স্ত্রী ডোনার সঙ্গেও আবার ২৪ বছরের বিবাহ বার্ষিকী কাটিয়ে ফেলেছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। এদিকে সৌরভ-ডোনার প্রেম কাহিনী নিয়ে চর্চা দীর্ঘদিনের। এমনকী তাঁদের দাম্পত্য জীবনে পদার্পনের ইতিহাসও নাকি হার মানাবে রূপকথার গল্পকেও, এমনটাই ধারণা অনুগামীদের। গত রবিবারই ছিল সৌরভ-ডোনার ২৪ বছরের বিবাহবার্ষিকী।

তবে ২০১৩ সাল থেকে বিবাহবার্ষিকী সেলিব্রেট করেন না সৌরভ ও ডোনা।২০১৩ সালে ২১ ফেব্রুয়ারিই সৌরভের বাবা মারা গিয়েছিলেন। তারপরে থেকে কেটেছে তাল। এদিকে সম্প্রতি দু’দফায় তিনটি স্টেন্ট বসেছে সৌরভের। আপাতত বাড়িতেই রয়েছেন চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে। এদিকে যখন যখন বসন্তের দামাল হাওয়া ভালোবাসার চাদর মুড়ি দিয়ে শীতঘুম ছেড়ে বেরোচ্ছে তিলোত্তমা তখনই প্রেম থেকে বিয়ের ইতিহাসের কথা বলতে গিয়ে বারবার আবেগতাড়িত হয়ে পড়তে দেখা গেল দুজনকেই।

এদিকে সৌরভ-ডোনার প্রেমের সূত্রপাতের কালে কলকাতা ছিল একেবারে অন্য মেজাজে। প্রেম সে যেন মধ্যবিত্ত বাঙালীর জীবনে গর্হিত অপরাধ। আর ঠিক সেই সময়েই ডোনার হাত ধরারা সাহস দেখিয়েছেলেন গাঙ্গুলী বাড়ির এই সুদর্শন যুবক। অনেকেই বলেন সৌরভ-ডোনার প্রেম প্রেমকাহিনী ছিল একেবারে সিনেমার মতন।তাই ছোটবেলা থেকেই ডোনা এবং সৌরভ দু’জনেই ছিল খেলার সঙ্গী। ছোট থেকে একসাথে বেড়ে উঠেছেন দুজনে। যৌবনে যা রূপ নেয় ভালোবাসার। এমনকী প্রাথমিক ভাবে সম্পর্কে একাধিক বাধা এলেও সৌরভই নাকি প্রথম সাহস করে বাবা চন্ডীদাস গাঙ্গুলীকে সবটা খুলে বলেন। দেন ডোনাকে বিয়ের প্রস্তাব। এরপরই মহা ধুমধাম করে ১৯৯৭ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি বিয়ে হয় তাদের। তারপর প্রায় তিন যুগ কেটে গেলেও আজও অটুট রয়েছে সেই বাঁধন।


Like it? Share with your friends!

694
16 shares, 694 points