খবরবিনোদন

মাঝরাতে ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে ভুয়ো খবর, ‘বেঁচে আছে এখনও, মেরে ফেলো না ওকে’, জানালেন বন্ধু সৌরভ

বিগত ১৬ দিনেরও বেশি সময় ধরে হাসপাতালে যুদ্ধ করে চলেছেন অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা (Aindrila Sharma)। কিন্ত গতকাল অর্থাৎ বুধবার মধ্যরাতে হটাৎ করেই ঐন্দ্রিলা ও সব্যসাচী চৌধুরীকে (Sabyasachi Chowdhury) নিয়ে শোকবার্তায় ছেয়ে গেল সোশ্যাল মিডিয়া। খবরের সত্যতা যাচাই না করেই RIP লিখে ফেক নিউজ (Fake News) শেয়ার চলতে থাকে। শেষমেশ বাধ্য হয়ে মধ্যরাতেই আবারও পোস্ট সব্যসাচীর, ‘আরেকটু থাকতে দাও ওকে..’।

টেলিভিশনের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা ১লা নভেম্বর শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। সেই থেকেই চিন্তায় রয়েছেন অনুরাগীরা। এর আগেও দুবার ক্যান্সার আক্রান্ত হয়েছিলেন, তবে হাসি মুখেই যুদ্ধ জয় করে ফিরেছিলেন। এরপর হটাৎই আবার ব্রেন স্ট্রোক হয় ঐন্দ্রিলার। সেই থেকেই হাসপাতালে ভেন্টিলেশনে রয়েছেন ‘জিয়ন কাঠি’ অভিনেত্রী।

ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে ভুয়ো খবর রটিয়ে পড়ায় বিতক্তি তো ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বন্ধু সৌরভ দাস (Sourav Das)। শুরু থেকেই সব্যসাচীর মত ঐদ্রিলার পাশেই রয়েছেন অভিনেতা। যদিও ‘আবার বিবাহ অভিযান’ ছবির জন্য শুটিং করছেন, তবুও প্রতিনিয়ত খোঁজ রাখছেন ঐন্দ্রিলার। ভুয়ো খবর ছড়িয়ে পড়তে দেখে সৌরভ ফেসবুকে লেখেন, ‘বেঁচে আছে এখনও। মেরে ফেলো না ওকে। পায়ে পড়ছি।’

প্রসঙ্গত, ১ নভেম্বর থেকে টানা ১৫ দিন হয়ে গেল। সেই থেকে  মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন ‘জিয়নকাঠি’ অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা। কিন্তু ক্রমশই অবস্থা খারাপের দিকে এগোচ্ছে অভিনেত্রীর। গতকালই হাসপাতাল সূত্রে খবর মিলেছিল অভিনেত্রীর স্ক্যান রিপোর্টে ধরা পড়েছে ব্লাড ক্লট। জানা যায় তাঁর মাথার যে পাশে অস্ত্রোপচার করা হয়েছিল সেখানে জমাট বেঁধেছে রক্ত।

যা নতুন করে উদ্বেগ বাড়িয়ে দেয় চিকিৎসকদের। জানা যায় ঐন্দ্রিলার মাথায় জমাট বাধা সেই রক্তের দলা গুলো এতটাই ছোট যা অপারেশন করে বার করা খুবই মুশকিল। তাই চিকিৎসকরা ওষুধের মাধ্যমেই তা গলানোর চেষ্টা করছেন। সেই সাথে জানা গিয়েছে ইতিমধ্যেই অ্যান্টিবায়োটিক বদলে দেওয়া হয়েছে অভিনেত্রীর।  তিনি সেই ওষুধে সাড়া দেন কিনা তা দেখার জন্য বাড়ানো হয়েছে পর্যবেক্ষণ।

Related Articles

Back to top button