গসিপছবিবিনোদনসিরিয়াল

মিঠাই থেকে রঞ্জা, পার্শ্বচরিত্রে কেরিয়ার শুরু করে টলিপাড়া কাঁপাচ্ছেন এই ৪ সুন্দরী অভিনেত্রী

সিরিয়াল (Bengali serial) মানেই দর্শকদের অত্যন্ত পছন্দের একটি বিষয়। সেই জন্যই তো রোজ বিকেলে টেলিভিশনের সামনে বসে পড়েন তাঁরা। প্রত্যেকদিন টেলিভিশনের পর্দায় দেখতে দেখতেই ধারাবাহিকের চরিত্রগুলি হয়ে ওঠেন দর্শকদের ঘরের সদস্য। সিরিয়ালের নামেই পরিচিতি তৈরি হয়ে যায় অভিনেতা-অভিনেত্রীদের। টেলি দুনিয়ায় অবশ্য এমন অনেক নায়িকা (Television actress) রয়েছেন যাদের কেরিয়ার শুরু হয়েছিল পার্শ্বচরিত্রের হাত ধরে। কিন্তু এখন নায়িকা হিসেবে রাজত্ব করছেন দর্শকমনে। আজকের প্রতিবেদনে এমনই ৪ নায়িকার নাম তুলে ধরা হল।

সৌমিতৃষা কুণ্ডু (Soumitrisha Kundu) – এই মুহূর্তে বাংলা টেলিভিশনে সম্প্রচারিত অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি ধারাবাহিক হল ‘মিঠাই’। জি বাংলার এই সিরিয়ালে অভিনয় করে দর্শকমহলে এখন মিঠাইরানী হিসেবেই পরিচিত সৌমিতৃষা। তবে জানিয়ে রাখি, এই অভিনেত্রী কিন্তু পার্শ্ব চরিত্রের মাধ্যমেই টেলি জগতে পা রেখেছিলেন।

Soumitrisha Kundu, Mithai, সৌমিতৃষা কুণ্ডু, মিঠাই

‘এ আমার গুরুদক্ষিণা’ ধারাবাহিকে খলনায়িকার চরিত্রে অভিনয় করতেন দর্শকদের প্রিয় মিঠাইরানী। এরপর ‘গোপাল ভাঁড়’, ‘জয় কালী কলকাত্তাওয়ালি’ ধারাবাহিকে কাজ করেন তিনি। ২০১৯ সালে ‘কনে বউ’ সিরিয়ালে প্রথম নায়িকার চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন সৌমিতৃষা।

রুশা চট্টোপাধ্যায় (Roosha Chatterjee) – বাংলা টেলিভিশনের অত্যন্ত জনপ্রিয় মুখ রুশা। এই অভিনেত্রী ‘ওগো বধূ সুন্দরী’ ধারাবাহিকে নায়িকা ললিতার বোন লাবণ্যর চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। এরপর ‘তোমায় আমায় মিলে’ ধারাবাহিকে নায়িকা উষসীর চরিত্রে অভিনয় করে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন রুশা।

Roosha Chatterjee, রুশা চট্টোপাধ্যায়, রুশা চ্যাটার্জি

ইধিকা পাল (Idhika Paul) – জি বাংলার অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি ধারাবাহিক ছিল ‘পিলু’। সেখানে রঞ্জার চরিত্রে অভিনয় করে দারুণ জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন অভিনেত্রী ইধিকা পাল। এর আগে কালার্স বাংলায় ‘আরব্য রজনী’তে পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন তিনি। এরপর অবশ্য ‘রিমলি’তে মুখ্য চরিত্রে দেখা গিয়েছিল ইধিকাকে।

Idhika Paul, Ranja, ইধিকা পাল, রঞ্জা

রুকমা রায় (Rooqma Ray) – বাংলা টেলিভিশনে অত্যন্ত জনপ্রিয় অভিনেত্রী হলেন রুকমা। নায়িকা হিসেবে কেরিয়ার শুরু করলেও পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন তিনি। ২০১৪ সালে নায়িকা হিসেবেই কেরিয়ার শুরু করে ‘লালকুঠি’র অনামিকার।

Rooqma Ray, রুকমা রায়

কিরণমালা হিসেবে দেখা গিয়েছিল তাঁকে। এরপর কাজ করেন ‘কুন্দ ফুলের মালা’য়। ‘প্রতিদান’ ধারাবাহিকে রুকমাই ছিলেন খলনায়িকা। এরপর ‘খড়কুটো’, ‘বাঘ বন্দি খেলা’, ‘দেশের মাটি’তে পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন তিনি।

Related Articles

Back to top button