Sonu Sood

আবারো চমৎকার সোনু সুদের, গ্রামে অনলাইন ক্লাসে বাঁধা, বসিয়ে দিলেন আস্ত ইন্টারনেট টাওয়ার!


করোনা কালীন লকডাউনের সময় থেকেই সংবাদ শিরোনামে বারবার উঠে এসেছেন সোনু সুদ। পরিযায়ী শ্রমিক থেকে দেশ বিদেশে আটকে থাকা ছাত্রছাত্রীদের বাড়ি ফিরিয়েছেন। এর পর কারোর হার্টের অপারেশন তো কারোর বাবার গলব্লাডার অপারেশন তো কারোর পাএর চিকিৎসার খরচ জুগিয়েছেন। চেষ্টা করেছেন যথাসাধ্য সাহায্য করার। এর পর থেকে বহু মানুষ নিজেদের অসুবিধার কথা জানাচ্ছেন ফিল্মইদুনিয়ার ভিলেন হলেও রিয়েল লাইফ হিরো কে।

করোনার জেরে গোটাদেশে বন্ধ স্কুল কলেজ ,বন্ধ অনেকের রুজিরোজগার এমতাবস্থায় অনলাইন শিক্ষাব্যবস্থা চালু করলেও সবার কাছে কি তা পৌঁছাচ্ছে! অধিকাংশ গ্রামাঞ্চলেই ইন্টারনেট পরিষেবার তথৈবচ অবস্থা, সেখানে কিভাবে হবে অনলাইন ক্লাস? এই সমস্যার সমাধানে ফের ত্রাতা রূপে হাজির হলেন সোনু সুদ।

সম্প্রতি,সোশ্যাল মিডিয়াতে এক পদুয়ার ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল, যেখানে অনলাইন ক্লাস করার জন্য গাছের ডালে উঠে মোবাইলে ইন্টারনেট সংযোগের চেষ্টা চালাচ্ছিল এক পড়ুয়া। পরে  জানা যায় ভিডিওটি চন্ডিগড়ের মোরনি এর দাপনা গ্রামের। এই বিষয়টি সোনু সুদের  নজরে আসে। তখন সোনু ও তার বন্ধু করেন গিলহত্রা এই সমস্যার  সমাধানের চেষ্টা শুরু করেন।

সোনু ও তার বন্ধু মিলে চন্ডিগড়ের একটি সরকারি স্কুলে স্মার্টফোনের ব্যবস্থা করেন। কিন্তু সেখানে গিয়ে বোঝা যায় শুধু স্মার্টফোনে হবে না কাজ, অনলাইন ক্লাস করার জন্য যে ইন্টারনেট পরিষেবার প্রয়োজন সেটাই নেই সেই গ্রামে। তখন তিনি যা করলেন তা সত্যি রিয়েল লাইফ হিরোর মত, আস্ত একটা মোবাইল টাওয়ার বসানোর ব্যবস্থা করলেন সোনু সুদ। টেলিকম অপারেটর এয়ারটেলের সহযোগিতায় চন্ডিগড়ের মোরনিতে মোবাইল টাওয়ার বসানোর পক্রিয়া শুরু করেছেন।

এই ঘটনার ফলে যথেষ্ট প্রশংসা পেয়েছেন অভিনেতা সোনু সুদ। তিনি মনে করেন শিশুরাই দেশের ভবিষ্যৎ, তাই তাদের শিক্ষার উপযুক্ত ব্যবস্থা করতে পেরে তিনি গর্বিত বোধ করেন। সাথে ইন্দাস টাওয়ারের পাঞ্জাব- হরিয়ানা বিভাগের প্রধান গগন কাপুর জানিয়েছেন, এমন একটি মহান কাজে যুক্ত হতে পেরে তিনি নিজে অত্যন্ত ভাগ্যবান মনে করেন।


Like it? Share with your friends!

667
667 points