গসিপবিনোদন

আমার গানে মুখ দেখিয়ে সালমান ৩৫ কোটি! আর আমি পেলাম মাত্র ২৫ হাজার, বিস্ফোরক সোনু নিগম

সুশান্ত সিং রাজপুতের (Sushant Singh Rajput) মৃত্যুর পর থেকে বলিউডের কেচ্ছা একেরপর এক সামনে এসেছে। ভিতরে চলে আসা স্বজনপোষণ, নোংরা কাদা ছোড়াছুড়ি, পারিশ্রমিক নিয়ে রাজনীতি সবই আর জানতে বাকি নেই কারোর। এবার বলিউডের সাথে জড়িত সঙ্গীত জগতকে নিয়েও দানা বেঁধেছে বিতর্ক। এবার এই নিয়ে মুখ খুললেন বলিউডের অন্যতম বিখ্যাত গায়ক সোনু নিগম (sonu nigam)।

ইতিমধ্যেই টি সিরিজের ভূষণ কুমার সম্পর্কে একাধিক অভিযোগ আনেন সোনু সুদ, তা নিয়ে চলছে তুমুল জল্পনা। এই আবহেই হঠাৎ ভাইরাল হয়েছে ফেসবুকে ঘুরতে থাকা সোনু নিগমের ৭ বছরের পুরনো একটি ভিডিও। সোনু জানান, গুলশন কুমারের হাত ধরেই ইন্ডাস্ট্রিতে এসেছিলেন তিনি। পরে সোনু নিগমই নিজে লঞ্চ করেন ভূষণকে।
বহু খারাপ কাজের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন ভূষণ, তাও তাকে নিজের ভাইয়ের মত সাহায্য করেছেন সোনু।

সোনু নিগম Sonu Nigam

এবার তিনি মুখ খুললেন অভিনেতা দের প্রসঙ্গে। সলমন একসময় বলেছিলেন, গায়ক গায়িকাদের গানের জন্য রিয়্যালিটি চাওয়া উচিৎ নয়। কারণ একটা গান হিট হয় নায়ক নায়িকাদের সুবাদে। সোনু এর পাল্টা বলেন, ‘তাহলে নায়ক নায়িকাদের নিয়ে করা যে কোনও ভিডিও অ্যালবামই সুপার ডুপার হিট হত। কিন্তু সব গান হিট করে না, করে কিছু গান’।

কোনো গান হিট করে সুরকার, গীতিকার, গায়কদের জোরেই। সেই সব গানের কথাই হোক বা সুর, বা গায়কগায়িকার কণ্ঠ- কিছু একটা শ্রোতার ভাল লেগে যায়। সলমনের ফ্যান হয়েও সোনু বলেন, সলমন বয়সে অনেক বড়, তাঁকে তিনি সম্মান করেন। কিন্তু তার গানে মুখ দেখিয়ে সলমন পান ৩৫ কোটি টাকা, আর সোনু পান ২৫ হাজার। এই বৈষম্যকে তুলে ধরে সোনু আরও বলেছেন,’যেমন ধরুন সারে কে ফল সা গানটি। গায়ক নাকাশ আজিজ আজ কোথায় কেউ জানে না। অথচ ঠিক সময়ে রয়্যালটি পেলে অনেক নতুন গায়ক গায়িকা লড়াইয়ে টিকে থাকতে পারতেন। ‘

“আমি বিশেষত আমাদের সংগীত সংস্থাগুলির কাছে একটি অনুরোধ জানাতে চাই। আজ সুশান্ত সিং রাজপুত মারা গেছেন, তিনি ছিলেন একজন অভিনেতা। কাল আপনি হয়ত একজন গায়ক, সুরকার বা গানের লেখক সম্পর্কে অনুরূপ কিছু শুনতে পাচ্ছেন। কারণ, পরিবেশটির পরিবেশ দুর্ভাগ্যক্রমে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির তুলনায় আমাদের দেশে সংগীত শিল্প এমন বড় মাফিয়াদের উপস্থিতি রয়েছে”, সোনু জানান।

Related Articles

Back to top button