বিনোদন

রক্ত দিয়ে বিপদ ডেকে আনছেন! মাস্ক ছাড়া রক্তদানের ছবি দিয়ে তুমুল ট্রোলের শিকার সোনু নিগম

বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ার (Social Media) যুগে কেউ একমিনিটে ভাইরাল (Viral), কেউ আবার একটি কন্টেন্টের জন্য রাতারাতি ‘ট্রোল’-র (Troll) শিকার। সম্প্রতি সেরকমই এক ঘটনার সম্মুখীন বলিউডের নামজাদা গায়ক সোনু নিগম (Sonu Nigam)। গত দু’দশক যাবৎ ইন্ডাস্ট্রি কাঁপানো গায়ক আজ ট্রোলড সোশ্যাল মঞ্চে!

সম্প্রতি মুম্বইয়ের জুহুতে আদর্শ ফাউন্ডেশন কর্তৃক আয়োজিত একটি রক্তদান শিবিরের উদ্বোধন করেন সোনু নিগম। পাশাপাশি ওই শিবিরে রক্তদানও করেন তিনি। রক্তদানের (Blood Donation) পর ইনস্টাগ্রামে (Instagram) একটি ভিডিও মারফত তাঁর ভক্তদের টিকা নেওয়ার আগে অন্তত একবার রক্তদানের আহ্বান জানান। সোনু নিগম বলেন, “আগামীতে ভারত জুড়ে রক্তের বিশাল সংকট তৈরি হতে পারে। তাই ভ্যাকসিন (Vaccine) নেওয়ার আগে রক্তদান করুন। আর যাঁরা করোনাকে (Coronavirus) হারিয়ে ইতিমধ্যেই জয়ী, তাঁরাও টিকা নেওয়ার আগে রক্ত দিন।”

যোগী আদিত্যনাথ সোনু নিগম Sonu Nigam Yogi Adityanath

ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মঞ্চে তুমুল ভাইরাল (Viral) হয়েছে সোনু নিগমের কয়েকটি ছবি যেখানে তাঁকে রক্তদান করতে দেখা যাচ্ছে। যদিও এহেন প্রশংসনীয় কাজের পরেও ট্রোলের (Troll) সম্মুখীন সোনু। কারণ তাঁর মুখে মাস্কের (Mask) অভাব! মাস্ক না পরেই রক্ত দিতে দেখা যায় বেশ কয়েকটি ভাইরাল ভিডিও ও ছবিতে। স্বাভাবিকভাবেই এহেন কঠিন সময়ে মাস্ক না পরে রক্তদানের যৌক্তিকতা কতটা, সে বিষয়ে প্রশ্ন তুলেছেন নেটিজেনরা (Netizen)।

উদ্বোধনের সময়ে সোনুর মুখে মাস্ক দেখা গেলেও চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলার সময় গায়কের মুখে মাস্ক দেখা যায়নি। পাশাপাশি রক্তদানের সময়েও তাঁর মুখে ছিল না মাস্ক। ভাইরাল ভিডিও ও ছবিগুলোর ভিত্তিতেই এরপর ট্রোলের ঝড় ওঠে সোনুর বিরুদ্ধে। অনেকেই সোনুর রক্তদানের আগে তাঁকে ‘মাস্ক দান’-র পরামর্শ দেন। এহেন দায়িত্বজ্ঞানহীনতার পরিচয় দেওয়ায় অনেকেই সরাসরি কটাক্ষ করেন গায়ককে।

sonu nigam

সোশ্যাল মঞ্চে ইতিপূর্বে সোনু নিজেই জানিয়েছিলেন যে তিনি করোনার শিকার হয়েছেন। এত দ্রুত তাঁর রক্তদান নিয়ে স্বাভাবিকভাবেই উঠছে প্রশ্ন। অন্যদিকে ভ্যাকসিন নেওয়ার আগে রক্তদানের মত মহৎ কাজকে কিন্তু সাধুবাদ জানিয়েছেন নেটিজেনদের একাংশ।

 

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Sonu Nigam (@sonunigamofficial)

Related Articles

Back to top button